দুঃস্বপ্নের নাম যখন এন্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্ট

নাসিমুন নাহারঃ

টুপুর আর টাপুর জমজ দুই বোন। তাদের বাবা পুলিশের বড় অফিসার। দেশের বিভিন্ন জায়গায় পোস্টিং হয় তার। ব্যস্ত মানুষ। দু’বছর আগে ক্লাস ওয়ানে ভিকারুন্নেসা নুন স্কুলে ভর্তি হবার পরে মায়ের সাথে ঢাকাতেই থাকে টুপুর টাপুর।
ছুটিতে বাবার কাছে বেড়াতে চলে যায় তারা। দুই বছর হলো বাবার পোস্টিং বান্দরবান। এই দুবছরে বান্দরবান যাওয়া আসা করতে করতে রীতিমত পাহাড়ের সাথে বন্ধুত্ব হয়ে গেছে তাদের। তারা প্রায় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে যে বড় হয়ে তারা শেরপা হবে। পাহাড়কে জয় করবে। পাহাড়েই বসবাস করবে তারা।
স্থানীয় পাহাড়ীদের সাথেও খুব ভালো সম্পর্ক তাদের। সবাই ভালোবাসে পুতুল পুতুল দেখতে এই জমজ দু’বোনকে।

অসম্ভব অপার্থিব সৌন্দর্যের সাথেই কেন যেন বরাবরই প্রকৃতি ভয়ংকর কিছু জড়িয়ে রাখে।
বান্দরবানের চমৎকার মুগ্ধতা মাখা প্রকৃতি এবং স্বর্গের দেব শিশু টুপুর টাপুর যেমন ছিল অপার সৌন্দর্য মাপকাঠি;  ঠিক তেমনি ভয়ংকর কুৎসিত রূপে পাহাড়ে ওত পেতে থাকে ম্যালেরিয়া।

ছোট্ট টুপুর সেরিব্রাল ম্যালেরিয়াতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেল গতমাসে। পাহাড়ের বুকে তার চিরস্থায়ী ঘর হয়েছে শেষ পর্যন্ত!  টাপুর টুপুর নিয়মিত বাবার কাছে পাহাড়ে যেত বলে ম্যালেরিয়ার প্রোফাইলেক্সিস নিতে শুরু করেছিল। কিন্তু বাবা মায়ের ব্যস্ততা, ক্লাস, স্কুল, কোচিং সব মিলিয়ে এন্টিবায়োটিকের ফুল কোর্স তারা কমপ্লিট করতে পারেনি সময় মতো। ফলে দুর্ভাগ্য বশতঃ টুপুরের শরীরে এন্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্স ডেভলপ করে। ফলশ্রুতিতে সেরিব্রাল এটাক হয়ে দেবশিশুটি আমাদেরকে ছেড়ে স্বর্গে চলে গেল।

আমাদের দেশের পাহাড়ি অঞ্চলগুলো হচ্ছে ”Falciparum Endemic Zone”
ফলে ম্যালেরিয়ার ফুল প্রোফাইলেক্সিস মানে এন্টিবায়োটিকের ফুল কোর্স কমপ্লিট করা খুবই দরকার যারা নিয়মিত পাহাড়ি এলাকায় চলাফেরা করেন তাদের জন্য।

শুধুমাত্র ম্যালেরিয়াতে নয়, যেকোন অসুখে চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী সঠিক নিয়ম মেনে এন্টিবায়োটিকের কোর্স কমপ্লিট করা খুবই জরুরী। নাহলে এন্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্ট হয়ে টুপুরের মতো করে আরো অনেক টুপুর হারিয়ে যাবে আমাদের মাঝ থেকে।মৃত্যু আসবেই !

কিন্তু ২০১৭ সালে এই সময়ে এন্টিবায়োটিকের ফুল কোর্স কমপ্লিট না করাতে কিংবা ভুল নিয়মে এন্টিবায়োটিক ব্যবহার করাতে এন্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্ট হয়ে কেউ মারা গেলে মন অসম্ভব খারাপ হয়ে যায়। মেনে নেয়া যায় না কিছুতেই।

একটু কস্ট করে আমাদের উচিত যেকোন এন্টিবায়োটিকের ফুল কোর্স অবশ্যই অবশ্যই কমপ্লিট করা। আমাদের কারো পরিবারে আর কোন টুপুর যেন এন্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্ট হয়ে বড্ড অবেলাতে আমাদেরকে ছেড়ে চিরতরে চলে না যায়।
সুস্থ থাকুন, সচেতন হোন, ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য সুস্থ নিরাপদ পৃথিবী তৈরি করুন।

লেখকঃ চিকিৎসক ও কলামিস্ট

Comment

Comment

   
ই-মেইলঃ mohioshi@outlook.com
ফেসবুকঃ www.facebook.com/mohioshibd
মোবাইলঃ ০১৭৯৯৩১৩০৭৮, ০১৭৯৯৩১৩০৭৯
ঠিকানাঃ ১০/৮, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
কপিরাইট ©  মহীয়সী