ভালোবাসার মানুষটির জন্য নিজেকে পরিবর্তন করাও এক প্রকার ভালোবাসা

তারাকী হাসান মেহেদীঃ স্থায়ী সম্পর্কগুলোতে স্যাক্রিফাইস ও একে অন্যের প্রতি সম্মান- এই দুটো জিনিস অনেক বেশি জরুরী।

সংসার জীবনে অনেক কিছু নিয়েই কথা কাটাকাটি কিংবা মনের অমিল হয়। অনেকেই আবার এগুলোকে খুব সিরিয়াসলি নেয়।

যে মানুষটার সাথে সারাজীবন একসাথে থাকতেই হবে, তাহলে অযথা সেই মানুষটার সাথে ঝগড়া বিবাদ বাড়িয়ে কি লাভ?

বরং এমন পরিবেশ তৈরি করা উচিত, যাতে দুজনই শান্তিতে থাকা যায়।

অনেকে আছে বলে, “আমি যেমন আছি তেমনি থাকব। কারো জন্য নিজেকে পরিবর্তন করতে পারব না।”

এই ধরণের মানুষকে অনেকে প্রবল ব্যক্তিত্বের মনে করলেও আমার কাছে এদেরকে একগুঁয়ে ছাড়া আর কিছু মনে হয় না।

অথচ ভালোবাসার মানুষটির জন্য নিজেকে পরিবর্তন করাও এক প্রকার ভালোবাসা।

নিজেকে একটু পরিবর্তন করলে যদি বাকি জীবন দুজনে ভাল থাকা যায়, তাহলে সেই পরিবর্তন করতে সমস্যা কোথায়?

নিজেকে পরিবর্তন করা একটা বড় স্যাক্রিফাইস, কিন্তু সেই স্যাক্রিফাইসটা যে দুজনই সমানভাবে করবে তা নয়। সে আশা করাটাও বোকামি। এবং সত্যি বলতে কি, সে আশা যখন কেউ একজন করা শুরু করে, সেটাও ঝগড়ার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

অন্য কেউ স্যাক্রিফাইস করল, কি না করল, সেটা না দেখে নিজের পক্ষে যতটা সম্ভব স্যাক্রিফাইস করা উচিত। এতে অনেক ঝামেলা এড়িয়ে চলা যায়।

অনেকেই রেগে উত্তেজিত হলে গালি দেয় কিংবা তুই তুকারি করে।

এমনটা কখনোই করা উচিত না, কখনোই না। এতে একে অন্যের প্রতি সম্মান নষ্ট হয়ে যায়, সম্পর্কের বন্ধনও দুর্বল হয়ে যায়।

এই সম্মান একবার নষ্ট হয়ে গেলে, সেটা আর কখনোই ফিরে আসে না। আর যে সম্পর্কে সম্মান নেই, সে সম্পর্কের স্থায়ীত্বও বেশিদিন থাকে না। আর যদি কোনক্রমে স্থায়ী হয়ও, তবে সেটা কোন এক পক্ষের দিক থেকে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অনুভুতিশুন্য সম্পর্ক হয়ে যায়।

কথায় কথা বাড়ে। দু’জনের মধ্যে রাগারাগি হলে, দুজনই যখন চেঁচায়, রাগারাগি আরো বেড়ে যায়।

বরং একজন যদি একটু চুপ থাকে, তাহলে খানিকবাদে ব্যাপারটি কিছুটা স্বাভাবিক এমনি হয়ে যায়। এই চুপ থাকাটাও একটা বড় স্যাক্রিফাইস।

যে মানুষটার সাথে সারাজীবন একসাথে থাকতে হবে, একই বিছানায় ঘুমাতে হবে, সকাল হলেই চেহারা দেখতে হবে, তাহলে সেই মানুষটার সাথে ঝগড়া বিবাদ বাড়িয়ে কি লাভ?

লেখকঃ চিকিৎসক ও কলামিস্ট

Comment

Comment

   
ই-মেইলঃ mohioshi@outlook.com
ফেসবুকঃ www.facebook.com/mohioshibd
মোবাইলঃ ০১৭৯৯৩১৩০৭৮, ০১৭৯৯৩১৩০৭৯
ঠিকানাঃ ১০/৮, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
কপিরাইট ©  মহীয়সী