একুশে বইমেলার বই “হার না মানা একদল অপরাজিতার জীবনযুদ্ধ”

নাসিমুন নাহারঃ তেইশ জন নারীর জীবনের গল্প নিয়ে সাজানো আমাদের বই “হার না মানা একদল অপরাজিতার জীবনযুদ্ধ”

যুগে যুগে কালে কালে কেন যেন সব সময়ই নারীকে দুর্বল, ভীতু, গড্ডলিকা প্রবাহে গা ভাসানো দেখতেই স্বচ্ছন্দ বোধ করেছে এই সমাজ।সাহসী, সৎ, জীবনযুদ্ধে হার না মেনে নিয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা স্রোতের বিপরীতে কিন্তু সঠিক পথে চলা নারীতে অভ্যস্ত নয় এই সমাজ।

খুব হাস্যকর ভাবে ভার্চুয়াল জগতেও নারীকে কেন যেন পণ্য, সিম্প্যাথি সিকার, বানিজ্যিক উদ্দেশ্যেই ব্যবহার হতে দেখি বেশি। অনলি ফর গার্লস গ্রুপ ট্যাগে চলছে সেই মান্ধাতা আমলের পরচর্চা, কূটকচাল এবং অনধিকার চর্চার বদ অভ্যাস। আমরা আমাদের অনলি ফর গার্লস গ্রুপ “ভালো থাকি – ভালো রাখি” থেকে চেষ্টা করছি শুদ্ধ জীবনবোধ চর্চা করার। আশেপাশের মানুষদেরকে ভালো রাখতে আমরা হেলথ ক্যাম্প থেকে শুরু করে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের লেখাপড়ার সামগ্রী উপহার দিচ্ছি, গরমের সময় রিক্সা চালককে এক বোতল পানি, স্যালাইন সহ শীতে চেষ্টা করেছি বৃদ্ধাশ্রমসহ এতিমখানায় সমাজের অসহায় কিছু মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

একদিনে কিছু বদলে যাবে না, জানি। কিন্তু আজ যদি শুভ কিছুর শুরু হয় একদিন অবশ্যই অশুভ শক্তি বদলে যাবে।
আর তাই আমরা বিশ্বাস করি— সব মন্দের যেমন অবসান ঘটে ঠিক তেমনি নারীদের নিয়ে ভ্রান্ত ধারণা অবসানও নিশ্চয়ই একদিন ঘটবে।

নারী নিজেও একজন individual identity.
নিজের জন্যও সে বাঁচে। নিজের স্বপ্নের পেছনেও সে ছোটে। পরিবার, ঘর সংসার, ক্যারিয়ার সব সামলে নারী ঠিকই দশভুজা হয়ে ওঠে। নারী শক্তি শারীরিকভাবে দুর্বল ( জন্মগতভাবে প্রাপ্ত বলে) হলেও মানসিক ভাবে এবং কলমের শক্তিতে ভীষন শক্তিশালী, সৃজনশীল হয়ে উঠতে পারে সুযোগ পেলে।

আমাদের বইটা হয়তো সাহিত্য মানে দূর্বল হতে পারে। তবে জীবনের গল্পে যে আবেগ, আর্কষণ, সততা থাকে তা কখনো কখনো সাহিত্যকেও ছাড়িয়ে যায়।

 

বইটি আসছে এবারের অমরের একুশে বইমেলায় #আনন্দম_প্রকাশনী থেকে।
স্টল নম্বর– 389-390
স্টলের নাম– ম্যাগনাম ওপাস

Comment

Comment

   
ই-মেইলঃ mohioshi@outlook.com
ফেসবুকঃ www.facebook.com/mohioshibd
মোবাইলঃ ০১৭৯৯৩১৩০৭৮, ০১৭৯৯৩১৩০৭৯
ঠিকানাঃ ১০/৮, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
কপিরাইট ©  মহীয়সী