বীরঙ্গনা সাফিনা লোহানী বর্তমানে পক্ষাঘাত গ্রস্থ!

নাসির উদ্দিন ইউসুফঃ 

unsung hero সাফিনা লোহানী। বর্তমানে পক্ষাঘাত গ্রস্থ। সিরাজগঞ্জে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা স্বামী আমিনুল ইসলামকে নিয়ে নিভৃত জীবন যাপন করছেন। এখন আর বীরঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাতে পারেন না।তাঁর সাথে থাকা বীরঙ্গনারা আজ সরকারী সুবিধাপ্রাপ্ত। অর্থনৈতিক ভাবে কিছুটা স্বনির্ভর।তিনিও আর আগেরমত শারীরিকভাবে সক্ষম নন।স্বামী সাংবাদিকতা থেকে অবসর নিয়েছেন।যুদ্ধের ক্ষত বিক্ষত শারীরের যন্ত্রনা নিয়ে দিনানিপাত করছেন।সেই কবে ১৯৭৮ সালে যখন অমানিশা । তখন তরুণ সাফিনা লোহানী প্রত্যাখাত নিপীড়িত বীরঙ্গনাদের বুকে টেনে নিয়েছিলেন।বীরঙ্নাদের জন্য গড়ে তুলেছিলেন “উত্তরণ” মহিলা সংস্থা। প্রবল প্রতিরোধের মধ্যে ২১জন বীরঙ্গনাকে নিয়ে পাড়ি দিয়েছেন প্রতিকূল সময়। ২০০৭ সালে নাট্যকার সেলিম আল দীন আমাকে সাফিনা লোহানীর বীরঙ্গনাদের বাঁচানোর একক লড়াইয়ের সংবাদ আমাকে জানান। আমি তখন “মুক্তিযুদ্ধ প্রতিদিন” ধারাবাহিক অনুষ্ঠান করছি চ্যানেল আইতে।সিরাগন্জ ছুটে গিয়ে বীরঙ্গনাদের ও সাফিনা আপার অকুতভয় সংগ্রাম ও ট্রেজিক জীবনের কথা ধারণ করে সম্প্রচার করলে দেশব্যাপী ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়। ১৯৭৫ এর পর এই প্রথম গনমাধ্যমে বীরঙ্গনাদের কথা শ্রুত হলো।১৯৭৫ এর ১৫আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে হত্যার পর ও সেনা, স্বৈরশাসনকালে বীরঙ্গনাদের কথা প্রায় জাতি বিস্মৃত হয়েছিলো। কিন্তু সাফিনা আপার মত কিছু মানুষ জীবনবাজী রেখে দীর্ঘ ৪৫ বছর উদহারণতুল্য মানবসপ্রেম ও দেশপ্রেমের যে নজীর স্থাপন করেছেন তা তুলনারহিত। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট বীরঙ্গনাদের সামাজিক মর্যাদা ও অর্থনৈতিক অধিকার আদায়ের লক্ষে ২০০৭ থেকে সাংস্কৃতিক আন্দোলন গড়ে তোলে। পরবর্তীতে বিভিন্ন নারী সংগঠন ও সামাজিক সংগঠন বীরঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি ও মর্যাদার আন্দোলনকে বেগবান করলে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বীরঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি দেয় এবং বীরঙ্গনাদের সামাজিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটে। আর ঠিক এই সু সময়ে সাফিনা লোহানী হঠাৎ উচ্চরক্ত চাপ ও ডায়বেটিক রোগে আক্রান্ত হয়ে পক্ষাঘাত গ্রস্থ হয়ে পড়েন। কর্মবীর এই নারী বর্তমানে ব্যস্ততাহীন জীবনের ক্লান্তি ও অবসাদে অসুখী বোধ করেন। আমরাও আগের মত নিয়মিত যাতায়ত করিনা। তাই তাঁর ক্ষোভ ও অভিমান রয়েছে। গত সন্ধ্যায় তাঁর সাথে দেখা করেছি প্রায় ২বছর পর। সিরাজগন্জের ২১জন বীরঙ্গনার মধ্যে ৬জন গত ৪ বছরে প্রয়াত হয়েছেন। এখন ১৬ জন সমাজের স্বাভাবিক মানুষ হিসাবে বেঁচে আছেন। সাফিনা লোহানীকে মুক্তিযোদ্ধা বীরঙ্গনারা প্রতিদিন কেউনাকেউ দেখতে আসেন। এতেই তৃপ্ত তিনি। রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি তিনি প্রত্যাশা করেননা। জয়তু সাফিনা লোহানী

Comment

Comment

   
ই-মেইলঃ mohioshi@outlook.com
ফেসবুকঃ www.facebook.com/mohioshibd
মোবাইলঃ ০১৭৯৯৩১৩০৭৮, ০১৭৯৯৩১৩০৭৯
ঠিকানাঃ ১০/৮, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
কপিরাইট ©  মহীয়সী