বুক রিভিউঃ পলাতক

আবদুল মতিন

বইয়ের নামঃ পলাতক
লেখকঃ আসাদুজ্জামান জুয়েল
প্রচ্ছদঃ চারু পিন্টু
প্রকাশকঃ পেন্সিল
পৃষ্ঠাঃ ৮০
মূল্যঃ ১৯২/- টাকা।

বার বার পড়েছি , ২৫টি ছোট গল্পের সমন্বয়ে এ গল্পের বই।যা সকল শ্রেনির পাঠককে আনন্দ দেয়।এই বই মর্ডান বাংলা সাহিত্যের বিষয়বস্তু সব কিছু উঠে এসেছে। রিকশা চালক,চা বিক্রেতা, জেলে,ইঞ্জিনিয়ারিং,শিক্ষক, ডাক্তার, সহ অসংখ্য শ্রেণি পেশার মানুষের বাস্তব চিত্র লেখক তার এ গল্পে তুলে ধরেছেন।গ্রাম বাংলার মানুষের চাল-চলন,আচার – ব্যবহার, আন্তরিকতা,ভালবাসা, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা, শিক্ষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতির উপস্থাপন সত্যি দৃষ্টি আকর্ষণ করে আপমার মানুষের কাছে। আঞ্চলিকতাও লক্ষ্য করার মত

প্রেমা গল্পে লেখক মনে অনবরত ভালবাসার আবিষ্কার দৃষ্টি নন্দন।

করলা ইলিশ গল্পে রান্না উপাদান মানব জীবনে নতুন অভিজ্ঞতা সৃষ্টি করে।
ভালবাসি গল্পে মানব জীবনে হৃদয় মন থেকে দ্বীপ্ত আকাঙ্খার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।
ভাষাগত দক্ষতা শব্দ ব্যবহার মর্ডান কবি সাহিত্যিক হিসেবে সত্যি এটি চরমভাবে শিক্ষণীয়

প্রিয় সেই বাক্যটি ” আমার বাবা একজন মিথ্যেবাদী একজন শিক্ষক মানুষ কি করে এত মিথ্যেবাদী হতে পারেন” ভিতরে যা পেলাম তা সত্যি অশ্রুসজল কাহিনী। অসুস্থ, গরীব, হত বঞ্চিত মানুষকে বাবা তার বেতন থেকে দান করেছে।অথচ মাকে বলছে আজ কি করে জানি ১৫০০/- হারিয়ে গেছে।

মানব জীবনে এ বইয়ের প্রভাব অতি প্রখর।
লেখকের উদহারন বা উপমা ( তুলনা) প্রকাশও খুবই দৃষ্টি নন্দন। প্রতিটি গল্পে নান্দনিকতার স্পর্শ লেগে আছে।
পেন্সিল প্রকাশনার তার এ বইটি সকল শিক্ষা অনুরাগীদের পড়া অতিব জরুরী।

আবদুল মতিন কবি,  সাহিত্যিক ও বেসরকারি  কলেজ শিক্ষক।

আরও পড়ুন