ডাক দিয়ে যাই

-আবু সাইফা

জানুর ওপরে উবু হয়ে ঝিমাবে আর কতকাল
এবার জেগ ওঠো কবি, ডাকে সোনালী সকাল—

হে স্বাধীনচিন্তা মুক্তবুদ্ধি আর সত্যের উপাসক
মহাসত্যের অগ্নিস্পর্শে আজ তব অভিষেক হোক,
সত্য মনুষ্যত্বে স্নাত হও,
অবগুণ্ঠন ফেলে ছাতি উঁচু করে এবার দাঁড়াও।

ঐ আকাশ এই মাটি এ মহাবিশ্বব্যেপে
তোমার সীমানা। তুৃমি ওঠো ক্ষেপে
আরো অসংখ্য নজরুল
এখন এ জাতির তরে বড় প্রয়োজন,
নতজানু হয়ে আর ঝিমাইয়োনা খোলো দুনয়ন।

হে কবি, তোমার কলম নয় অতি সাধারণ
অগ্নিপ্রসবিনী ও কলমে কর আলো বিকিরণ,
অন্যায়, অসত্য জরাব্যাধি ভয়
ও আগুনে পুড়ে যেনো খাঁটি সোনা হয়।

নিজেকে আবিষ্কার কর নিজেরই মাঝে নবরূপে
হে কবি, শানিত তলোয়ার তুৃমি
আর কত লুকিয়ে রবে জং ধরা খাপে?
তোমার কণ্ঠ এবার খোলো —
দিগন্তব্যাপীয়া হাজার কন্ঠের প্রতিধ্বনি তোলো।

তুৃমি কবি, তুৃমি নেতা নও
মিথ্যার আড়ালে স্তুতি গেয়ে নিজেকে কভূ না বিকাও।
যাবতীয় সু্ন্দরে রোমাঞ্চিত হোক হৃদয় তোমার,
অন্যায়-অবিচারে ক্ষুব্ধ কাতর–
চিরব্যথিত হে মানবপ্রেমিক
তোমার ভালোবাসায় আলোকিত হোক দশদিক।

এভাবে ঝিমাইয়োনা আর
জানুর ওপরে মাথা থুয়ে
সময় যেতেছে ক্ষয়ে —
ক্ষয়িষ্ণু জমাটবরফের মত।

কবি, তুৃমি মাথা তোলো,
গ্রীবা তব রেখোনা ক আর অবনত।

আবু সাইফা কবি ও সাহিত্যিক।

আরও পড়ুন