মানুষ

রিফাত কান্তি সেন
মুখেই বলি মানুষ মানুষ,মানুষ নইতো মোরা
স্বার্থের কাছে নত হই, স্বপ্ন দেখাই বৃথা।
মানুষ হইতে মান- হুশ দুটোই থাকা চাই।
মান-হুশ না থাকলেও বড় গলায়- মানুষ মানুষ বলে যাই।
রাতারাতি গাড়ি,বাড়ি আরো কত কী চাই,
শত টাকার জন্যই মানুষের গলা কাঁটি ভাই।
হিংস্র প্রাণি আর বণ্য প্রাণীর রূপে অবতীর্ণ হই মাঝে মাঝে, হিংস্রতার বলি হয় আসল মানুষ ভবে।
মুখেই বলি মানুষ, মানুষ- মানুষ নইতো মোরা, ছদ্মবেশে মানুষ সেজে, হচ্ছি তরতাজা।
লুটপাট আর দখল সবই করি রাতের আঁধারে,দিনের আলো ফুটলে আবার মানুষ হই, মানুষের তরে।
সামনে এক, পিছনে আরেক এভাবেই চলে দিন।
মানুষে, মানুষে বিভেদ লাগিয়ে উল্লাসে করি রাত দিন।
দানের নামে ভেলকিবাজি করি তাহা প্রতিদিন।
সেলফি আর ছবির মাঝেই দান দেখাই সীমাহীন।
আসল সত্য কে বা জানে,কে লয় তাহার খবর। মানুষ রূপে পশুর দল হানাদেয় বরাবর।
সেবার নামে চলছে এখন দারুন রাজনীতি, আসলে তাঁরা স্বার্থের টানে করে পেটনীতি।
দয়ামায়া নাই মানুষে মানুষে,নরপিচাশের দল, গর্ভধারাণী মাকে ও আজ করেছে তাঁরা পর।
তারাই মানুষ,তারাই বিবেক- সমাজে চলে উঁচু স্তরে। তাঁদের গুণগাণ করিতে করিতে একদল চলে সমান তলে।
তাঁদের পদতলে ঠাঁই হয় যত গুণাগার আর মুনাফেকের। মানুষের কষ্টে কাঁদে না তাঁরা, নূনের ছিঁটা দেয় কাঁটা গায়ে।
সমাজ তাহাদের বড় বলিয়া বাহবা দিতেই থাকে, সুযোগ পাইলেই আসল রূপ দেখাইতে তারা না ছাড়ে।
মানুষের তরে মানুষ মোরা, মানুষের গাই জয়গান, সত্যিকারের মানুষ খুঁজিতে মাঝে মাঝে মোরা হই হয়রান।
মানুষ তুমি কবে হবে মানুষ, কবে তুমি ফিরিবে ধরণীর বুকে, ছদ্মরূপের মানুষগুলো যেনো পৃথিবীতে গেছে ভরে।
কোটি মানুষের ভিড়ে আজ,আসল মানুষ খুঁজে পাওয়া দুস্কর-
লোভ, অহংকার আর পরনিন্দা মানুষের মাঝে করিছে ভর।
আসল মানুষ ভবে নাই,এ কথাও যে মিছে ভাই।
ভাল মানুষরা লুকিয়ে রয়,বুঝে শুনে কথা কয়।
করে না কাউকে হেয়, তারাই মানুষ, তাঁদের আছে হুশ জগৎ জুড়িয়া কয়।
লেখকঃ কবি ও সাংবাদিক।
লেখক রিফাত কান্তি সেন।
আরও পড়ুন