সাইকি

যে কোনো পরিবর্তন এক দিনে আসে না। বদল একদিনে ঘটবার মত ব্যাপার না। বদল করতে সবচেয়ে প্রথমে খেয়াল
করতে পারা দরকার।জানা দরকার কিসের বদল চাই কেন বদল চাই। যে কোনো বড় পরিবর্তন ছোট জায়গা থেকে শুরু
করা সহজ। পৃথিবী বদল আমার জন্য বড় কাজ। দেশ বদল করতে চেষ্টা করাটাও যথেষ্ট ভারী। এলাকা বদল করা ছোট কোনো চিন্তা না । পরিবারের পরিবর্তন করতে সবার একমত হবার মানসিক স্হিতি দরকার।আমাকে বদলে দেয়া কেমন হবে🤔
ঠিক । এটা সোজা কাজ। এটা সম্ভব। এটা করতে দরকার সচেতনতা। এর জন্য দরকার একা আমার মনের দৃঢ়তা।
আমাকে বুঝতে হবে আমার কিসে পরিবর্তন আনতে হবে।
প্রথমে ভাবনায় পরিবর্তন আনা পারতে হবে।ভাবনায় কি পরিবর্তন আনবো? পরিবর্তন এতটুকু আনবো যে আমি ইতিবাচক হবো। আমার পারফরম্যান্স ইতিবাচক হবে।আমি যা করব ইতিবাচক করব। আমি প্রথমে নেতিবাচকতা থেকে দূরে যাবো।
যে কোনো কাজ হবে না মনে হলে কিভাবে হতে পারে চিন্তা করব। নিজেকে কাউন্সিলিং করব। হ‌ওয়াটা ভালো নাকি না হ‌ওয়াটা যেখানে ভালো হবে সেখানে ভালো হ‌ওয়াটাই মূখ্য রাখবো। অন্যের ভরসার যোগ্য হবো। অন্যকে ভরসার যোগ্য মনে করব। কোনো বিষয়ে অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাবো । অনুমান নির্ভর ভাবনাকে দূরে রাখবো।যা চাই তা সহজ করে বলব। যা আমাকে অসুবিধা করবে তা স্পষ্ট করে বলব।
মানুষ মানুষের জন্য কাজ করবে এই আদেশ‌‌ মানুষ সঠিক জায়গা থেকে পেয়েছে। সেই আদেশকে পালন করব। আদেশ পালন সারা পৃথিবীতে বা সারা দেশে এমনকি সারা এলাকায় বাদ দিয়ে নিজের ঘরে করব। পরিবারের মানুষের সাথে সহজ হয়ে কথা বলব। বাঁকা কথা পরিহার করব। পরিবারে বাঁকা এবং অপ্রাসঙ্গিক কথার চাপ থেকে পরিবারের পরিবেশ দূষণ হয় । এই দিকে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখবো। পরিবারের সদস্যদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখবো।
সহজ কথায় ঠাট্টা কে ঠাট্টা হিসাবে বুঝিয়ে দিবো। কঠিন কথা বলে শ্রোতার মনে খারাপ প্রতিক্রিয়া হলে চালাকি করে সেটাকে ঠাট্টা বলে চালিয়ে দিয়ে নিজের উপর হায় হায় ঢুকাবো না।কারণ নিজের কাছে সত্য স্পষ্ট থাকে। নিজের কাছে কখনো কিছু আড়াল হয় না।রাগ, জেদ ,ধমক ,চিৎকার ,হৈচৈ, দূর্ব্যাবহার এমনকি মুখ খিস্তি দমন করব।সেই মুহূর্তে অবশ্য‌ই একটা ভালো দিক খুঁজে বের করব যা অতীত অভিজ্ঞতা থেকে জানি।
নিজেকে সারাদিন একটা ক্যামেরার ভিতর দিয়ে দেখলে এসব সম্ভব। এর শুদ্ধতা রক্ষা করতে নিজ নিজ সত্য ধর্ম গ্রন্থ
অনুসরণ জানলে আর কোনো ব‌ই না পড়লেও সাময়িক ভাবে চলবে।ধীরে ধীরে ব‌ই পড়ার অভ্যাস তৈরি করতে হবে।তবে ধর্মগ্রন্থ টা নিয়মিত আমৃত্যূ পড়ে যেতে হবে, মাতৃভাষায় অথবা মূল ভাষায় ধর্মগ্রন্হকে বুঝতে হবে ।জীবন একটা। একবার মারা গেলে পরে কোনোদিন ফিরে আসবো না। তাই যা করব,ভালোটা করব। আজকের সবটুকু আমার নিত্য ভাবনা। কেউ এই ভাবনার সঙ্গী হলে, সহযাত্রী হলে ভালো লাগবে । ধন্যবাদ সবাইকে।
মনিরা ইসলাম
প্রবাসী লেখিকা
প্রাক্তন শিক্ষক ক্যম্ব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল বাংলাদেশ
প্রাক্তন ছাত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রাক্তন শরীরচর্চা প্রশিক্ষক
শিশু প্রতিপালন বিশেষজ্ঞ (প্যাডাগগ)
আরও পড়ুন