প্রাপ্তি সংবাদ

 

কেউ প্রতিদিন আমাকে অবিরাম খুঁজে বেড়ায় ,
ঐ আকাশের নীলে,শুকনো বুনো লতায়!
জলতরঙ্গে খবর পৌছে দেয় —-
একদিন ঝিরিঝিরি বরষায়—–
” আপনার কিছু কুরিয়ার আছে ডাকবাক্সে
পাঠিয়ে দেবো তাড়াতাড়ি!”
জানার আগ্রহে অপেক্ষার রোদের তীব্রতায় জানতেই চাইলাম,
কি আছে আমার নামে!

বলল অচেনা জনৈক —-
“কেউ আপনার নামে এক আকাশ দুঃখ পাঠিয়েছে!”

কে আছে আমার এতো সুহৃদ!বন্ধু স্বজন!

অথচ আমি কতোবার আকাংখার জল ঢেলেছি প্রার্থনায়—–
কতবার বলেছি একাগ্রতায়—-
আমার শুদ্ধ মননে ঘনমেঘের মতো বিষণ্নতায় ছোঁয়া একটা দীঘল পৃথিবী চাই—–
যেখানে খড়কুটোর মতো ওড়াউড়ি করবে কিছুু দুঃখবিলাসী দিন!
আকুলতা ছিলো জনম ধরে,সেইসব দিনগুলো ছুঁয়ে দেখার!
অসীম আনন্দে ভেজা মেঘের আকাশে জলছাপে ইচ্ছের ফানুস উড়াবো!

অন্তহীন অভিলাষে দুঃখ খরিদ করার অভিপ্রায়ে প্রতিটি প্রহরে আমাকে ভেঙেচুরে গড়ি
আশ্রয় খুঁজি অদ্ভুত মনের ছায়াবৃক্ষের কোঠরে!
নীলরঙা মাছরাঙাটার মতো
আপন মনে দুঃখ বিলাসের ভুবন গড়ি
অতঃপর অনেক অপেক্ষার পরে আজ প্রাপ্তিসংবাদে স্বাক্ষর করি।
এক আকাশ দুঃখের সীমানায় বলাকার মতো মুক্তো ডানা মেলি—–
এ যেনো আমার দুঃখ নিনাদে তৃপ্ত আত্মহনন!
ভালোবাসার অসুখে নিত্যই যখন বিবর্নতায় ডুবি
এ সবই তখন আমার প্রার্থনার প্রাপ্তির ফসল!

তুমি খুশীতো! হে আমার সুহৃদ!
যতনে পাঠিয়ে ছিলে বিষণ্ণ দিনের ভায়োলিনের সুর,
অগত্যা তারই মাঝে খুঁজে নিয়েছি আমি
আমার আত্মার নিরাপদ সুখ!!

 

হাছিনা মমতাজ ডলি- কবি ও সাহিত্যিক

আরও পড়ুন