বিদ্রোহী যৌবন

এ এইচ খানঃ

চির বিদ্রোহী, চির যৌবনা,প্রানবন্ত আমি আজ।
বন্ধুর পথ চলছি আমি মাথায় নিয়ে শত কাজ।

সাম্যের পথে নিষ্টা নিয়ে চলছি,পাই নাকো কোনো লাজ।
কুসংস্কার পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায় সেজে রঙ্গিন সাজ।

আমি যৌবন, আমি বিদ্রোহী, ন্যায়ের প্রতীক আজ
স্লাইকোন হয়ে ছুটছি, শেষ করতে মিথ্যার শত নাজ।

মিথ্যাচার করে গড়েছ প্রসাদ,হয়েছ লাখোপতি
লাথি মেরে গরিব, ঠকিয়ে শ্রমিক হয়েছ সমাজ পতি।

উপর ওয়ালাদের তেলবাজি করে নিচুদের ভাবে চুনোপুঁটি।
ন্যায় নীতি ভুলে গিয়ে তখনই তুমি ধরেছ দুর্নীতির খুঁটি।

আমি যৌবন,আমি বিদ্রোহী,মানব না কোনো কথা।
অন্যায় হলে বাধা হবই আমি, ন্যায়ের জন্য যায় যাবে মোর মাথা।

অন্ধকারের আমি আলোর স্পটিক হব,হব দুর্বলের   শক্তি।
সাম্যের গান গেয়ে যাব আমি, দিবো না কখনো মিথ্যাচারে ভক্তি।

আমি যৌবন, আমি বিদ্রোহী, তারুণ্য শক্তির জোয়ার।
অভাব দরিদ্র জয় করব আমি খুলিতে সুখের দুয়ার।

আমি অন্ধের চোখের আলো হব, হব অনাহারীর খাদ্য।
দুঃখের করুণ সুর মুছে দিব আমি, বাজবে সুখের বাদ্য।

আমি পৃথিবী থেকে তারুণ্য ফলা ছুড়ে আকাশ করিব ছিদ্র।
অপশক্তির পাহাড় ভাঙ্গব আমি, আমি হব দুর্বেদ্য।

ভাগ্যের দোষ দিব না, নিজ হাতে সব গরবো
সত্যের পথে চলতে গিয়ে,যদি মরতে হয় মরবো

আরও পড়ুন