ক্লান্ত কাঁচের কাপ

ক্লান্ত কাঁচের কাপ
দীর্ঘ সময় দীর্ঘকাল ধরে
দিনের পর দিন, গরম পানীয় নিজের হৃদয়ে ধারণ করতে করতে
ক্লান্ত হয়েছে আজ কাঁচের কাপ!
অথচ এমন হবার ছিলো না।

হৃদয়ের সবটুকু ভালোবাসা দিয়ে
যে আগলে রাখতো প্রিয় মুখকে
যে ক্লান্তি দূর করে দিতো এক চুমুকে
অথচ আজ সে নিজেই ক্লান্ত!

ক্লান্তির ছাপ তার সারা দেহে
বিন্দু বিন্দু হয়ে জমতে জমতে
ক্রমেই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।
অথচ তোমরা তার
বেদনাকে বল বাষ্প!
কেমন করে পার?
কই! সেতো কোনদিন তোমাদের ক্লান্তিকে অবহেলা করে অবজ্ঞা করেনি।
ফিরিয়ে দেয়নি তৃষ্ণার্ত দুটি ঠোঁট।
ঘরে ফিরে সন্ধ্যায় রোজ
কিংবা সকালে বেরুবার কালে
কখনও হতাশ করেনা এই কাঁচের কাপ!
অথচ আজ সে নিজেই ক্লান্ত!

ক্লান্তির ধারা গা বেয়ে
কান্নার মতো ঝড়ে পড়ছে!
কি বিস্ময়! বুঝার মতো একটা হৃদয় নেই
এই উদ্ভট পৃথিবীতে।

নিজেকে আজ বড় বেশী
বেদনার বিন্দুতে ঝাপসা হয়ে যাওয়া
কাপের মাঝে খুঁজে পাই
ক্লান্ত কাঁচের কাপে।

 

সুমেরা জামান- কবিও সাহিত্যিক।

আরও পড়ুন