ভাবনা_১

শিমু খান

জোর আপত্তিতে ঠিক ক্ষয়ে যায় সময়,
বেঁধে রাখা কেউ না আমরা।
জীবন তোমার পড়ে কার ছায়া?
মুহূর্তে মুহূর্তে অবনীল হয় আতংকিত,
পুষ্পা মেয়েটা হয় কালসাপ
কারো গল্পে।
বুঝিনা,এসব গেমস! শুরু করে কখন কোথায় শেষ।
কবিতায় কাছে টানা আবেগ,সস্তা বুঝতে দেরি হলে মারা পড়বে।
পড়ো,সখের জীবন হলে।
শব্দ স্পর্শের আবেগ,জলদি বুঝলে চোখে পড়বে বানান ভুল।
ও কি বলে,সে কি চায়?
বুঝবে না,কেউ বোঝে না এমন করে।
এত কেন চিন্তা করে অলস মস্তিষ্ক,
যেখানে বসত গেড়ে বসে আছে নোংরা মাকড়সা।
জাল বুনে যাচ্ছে টের পাচ্ছো?
চোখের সামনে আয়না ধরলে চামড়ার ভাঁজ দেখে চমকে উঠার সময় হয়েছে,
কেউ যে আছে সব কিছুর হিসেব নেবার।
ভেবে দেখছি কি?
“দয়াল বাবা কেবলা কাবা আয়নার কারিগর,,,”

 লেখক: কবি।

আরও পড়ুন