রমনী ছাড়া কেউ থাকে না

-নুরে আলম মুকতা

লাশের সামনে
বিস্নয় আর হতবাক দৃষ্টিতে
একজন নারীকে দেখলাম । সবচে ত্যাগ যার জন্য
রমন ভোগী
দাঁড়িয়ে ছিলো ,
মৃত জড় নিশ্চুপ আত্মার দিকে
তিনি মুখ বাড়িয়ে
বললেন, আহা
রাখা যাবে না।
মৃত্তিকায় সমর্পন জরুরী।
ফেলে দাও,পুঁতে দাও
দুর্গন্ধ ছড়িয়ে
যাবে চারিদিকে।
স্যুভেনির আর বাড়ির সমস্ত
কলুষিত করে দিবে।
তবুও অনড় ঐ নারী
একে একে দল ভারী করে ফেললেন ,
হৃদয় বিদীর্ণ আহাজারী
জুড়ে বুক ভাসিয়ে দিলেন
জোয়ারে ।
ধীরে ধীরে
কালো অমানিশার ঘোর অন্ধকারে ,
নিস্তন্ধ নিথর
ভালোবাসা আলিঙ্গন করে
দূরে ক্ষীয়মান দৃষ্টি প্রসারিত
করলেন ।
রুদালী দলের
শক্তির কাছে
আর কেউ থাকে না
কেউ থামে না।
কেউ নেই,নেই কেউ
বিস্ময় ছড়িয়ে দিয়ে ,
রমনকুলের সহযাত্রীরা
দৃপ্ত শপথে
ঠাঁই রইলেন
স্থির আর দৃঢ় চিত্তে।

১০.১০.২০২০

লেখকঃ কবি, সাহিত্যিক ও সহ-সম্পাদক, মহীয়সী।

আরও পড়ুন