শিশু শ্রম

অনামিকা বোস অনু

সেই ছোট্ট থেকেই শৈশব গেছে চুরি,

সংসারের বোঝা এসেছে কাঁধে ৷

হাতে চা ভরা কাঁচের গ্লাস নিয়ে
ছুটে বেড়াচ্ছে ৷

আবার কখনও ছুটছে বাবুদের জুতো পালিশ করতে ৷

মাঝে মাঝে ফাঁকি দিয়ে মন,উড়ে যায় ঐ আকাশে ৷

কখন শৈশব বাঁধা পড়েছে কাটা ঘুড়ির মতো ৷

মনের মধ্যে চাপা অস্থিরতার অশান্তি ৷

কাঁধে যে অনেক বড়ো দায়িত্ব ,

দারিদ্রের চাপে মনের ভিতরে ট্রামের ধাতব গোঙানি ৷

জীবন্ত হয়ে ওঠে,একমুঠো আলো হয়ে থাকা …জীবনানন্দ ৷

ছোট কাঁধে ভেঙে পড়েছে দায়িত্ব বোধ ৷

কাঁচের গ্লাস ধুতে ধুতে কখন যেন মনটা কেঁদে ওঠে ৷

বিদ্রোহী হয়ে সে প্রতিবাদ করতে চায় ৷

সব ছেড়ে বেরিয়ে যেতে চায় ওই খোলা আকাশে উড়ে যাওয়া স্বাধীন ঘুড়িটার কাছে ৷

তখনো ঘুম ভাঙছে না এই অলস পৃথিবীর ৷

রৌদ্র শুকনো হাসি তখনও তার মুখে ৷

রং মাখা মুখোশের পৃথিবীটা কবেই বিক্রি করেছে নিজেকে ৷

আসলে জীবন মানেই তো শুধুই আপোস ৷

২৫/০৮/২০

কবিঃ সাহিত্যিক

 

আরও পড়ুন