ব্রাউজিং শ্রেণী

পারিবারিক বন্ধন

এই তো সময় নীড়ে ফেরার…….

হাবিবা মুবাশ্বেরাব্যস্ত রাস্তায় বেপরোয়া গাড়িগুলো যখন প্রচন্ড স্পীড নিয়ে ছুটে যায় তখন তার গতিরোধ করার জন্য একটু পরপর দেয়া হয় স্পীডব্রেকার। আমরাও তেমনি পার্থিব জীবনকেই প্রায়োরিটি ভেবে তাতে সাফল্যে অর্জনের জন্য বিরামহীনভাবে ছুটে চলছি ।…

বনলতা, পদ্মা ও করলা- ইলিশ

আসাদুজ্জামান জুয়েল আমার আব্বা একজন ভীষণ রকম মিথ্যাবাদী মানুষ ছিলেন। একজন শিক্ষক যে এরকম মিথ্যা কথা বলতে পারেন, দুনিয়ার কেউ তা বিশ্বাস করবে না। একদিন নোয়াখালীর এক ভদ্রলোক স্কুল পরিদর্শক হিসেবে আসলেন। আব্বা সন্ধ্যার সময় বড় বড় করলা আর ইলিশ…

কীভাবে ভালোবাসবেন?

তারিক হক কীভাবে ভালোবাসবেন ? পড়েই আপনার ভ্রুরু কপালে উঠেছে তাই না ! মনে মনে বলছেন : আপনি  বুড়ো বয়সে আমাদের বিদেশ থেকে শেখাতে চাইছেন  কীভাবে  ভালোবাসতে হয় ! আমরা বাঙালিরা আর যা পারি না পারি এটা খুব ভালোভাবে পারি I  জানেন লেখক,  আমরা…

ছেলেটি হৃদয়বান

ডাঃ জোবায়ের আহমেদমেয়েটি তখন ক্লাস টেনে পড়তো।কিশোরী মনের চঞ্চলতায় চারদিক মাতিয়ে রাখে হাসিমুখ দিয়ে।সবার মধ্যমনি সে। বান্ধবীরা তাকে ছাড়া প্রায় অচল।সেই মেয়েটি একদিন এস এস সি পাশ করে কলেজে যাওয়া শুরু করেছে।কলেজে এসে হৃদয়ের আকাশে উঁকি দিলো…

প্রত্যাগত

আবু সাইফা আনোয়ার সাহেব একজন সুন্দরী স্ত্রীর মালিক । বউ যথেষ্ট সুন্দরী কিন্তু মনে শান্তি নেই।রীতিমতো নরকযন্ত্রণার মধ্যে তাকে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে। কেননা বিগত আঠারো বছরের দাম্পত্যজীবনে দুজন দুজনার হতে পারেনি। আনোয়ার দাহক স্ত্রী রওশনআরা…

মধুর সেই শাসন

সৈয়দা শর্মিলী জাহান রুমি --------------------- আমরা তিন বোন, ভাই নেই। আমার বাবা ছিলেন খুব রাগী ও রাশভারী মানুষ ।  সব সময় আমাদের একদম চোখে চোখে রাখতেন । কোথাও যেতে চাইলে সাথে করে নিয়ে যেতেন। একা কোথাও যাবার অনুমতি দিতেন না কখনো । এইচ,এস,সি…

বাবা

আসাদুজ্জামান জুয়েলআমি তখন রাজশাহীতে একটা মেসে থাকি। বাড়ী এসেছি মাসের শেষদিকে। আব্বা ছিলেন স্কুল শিক্ষক। তখন মাসের শেষটা চাকুরীজীবীদের জন্য কতটা খারাপ বুঝতাম না। বললাম এ মাসে একটু বেশি টাকা লাগবে।বাসা থেকে বের হচ্ছি, আব্বা নেই। আম্মা…

আত্মীয়তার সম্পর্ক ও বাস্তবতা

রফিকুল ইসলামশতবর্ষী এক বয়োবৃদ্ধ সেলুনে প্রবেশের সাথে সাথেই নাপিত জিজ্ঞেস করলেন চাচা রাহুল কাট দিব নাকি লেয়ার কাটিং? চাচা কোন জবাব না দিয়েই নির্দিষ্ট চেয়ারে বসে পড়লেন।মেশিনে জিরো স্টাইলে চুলের কাটিং শুরু হলে, নাপিত স্বগোক্তিতে বলা শুরু…

একটা নারী নির্যাতন মামলার আড়ালের গল্প

ডাঃ জোবায়ের আহমেদছেলেটা জেলের অন্ধকার প্রকোষ্ঠে।খুব শীত লাগছে তার।হাড় কাঁপুনি শীতে সে কাবু হয়ে যাচ্ছে।জেলে যেই কম্বলটা সে পেয়েছে তা দিয়ে এই শীতকে পোষ মানানো অসম্ভব।।ছেলেটার চোখের কোনে এক বিন্দু জল।সেই জল গাল বেয়ে গড়িয়ে পড়লো বালিশে।এই…

একজন মা ফৌজিয়া মতিন

 মাহফুজুর রহমান আখন্দ- ওয়াআলাইকুম আসসালাম।- মাহফুজ বলছিলাম মাওয়াই মা।- হ্যাঁ বাবা কেমন আছো? নাম বলা লাগবে না।- মাওয়াই মা, এটা তো আমার নতুন নাম্বার, কেমনে চিনলেন আমাকে?- তোমার সালাম শুনেই বুঝি বাবা। আর কিছু বলা লাগে না…