যেভাবে কাটাই হোম কোয়ারেন্টাইন

হাফিজা খাতুনঃ

হোম কোয়ারেন্টাইন কেমন করে কাটাই?তাই কিছুটা সময় ধর্মীয় জ্ঞানার্জন আর বিতরণে বরাদ্দ করেছি।আশাকরি আপনাদেরও ভালো লাগবে। যাদের ভালো না লাগবে অনুগ্রহ করে বিতর্ক না করে ইগনোর করবেন।

আজকের বিষয় বন্ধু নির্বাচনে সচেতনতাঃ

বর্তামান সময়ে মানুষ চেনা খুব দুষ্কর। তার উপর বন্ধু নির্বাচন করা আরো কঠিন কাজ। অনেকেই না জেনে না বুঝে যার তার সাথে বন্ধুত্ব করে নিজের জীবনকে কঠিন করে ফেলি। এমনকি বেঁচে থাকাও ভীষণ বিভীষিকায় পরিণত হয় । বিশেষ করে ইয়াং জেনারেশনের জন্য অনেক সময় ভুল বন্ধু নির্বাচন মারাত্মক ভয়াবহ পরিস্হিতি ডেকে নিয়ে আসে।

  মাদক,নেশা,ছিনতাই,চোরাকারবারি,হত্যা,অপহরণ,গুম, ধর্ষণসহ অপরাধ জগতে প্রবেশ করেছে এমন সবার ইতিহাস ঘাটলে দেখা যায় তারা বন্ধুর দ্বারাই এখানে যুক্ত হয়েছে। তাই জীবনে সদাচারী,সফল মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে বন্ধু নির্বাচনের ভূমিকা অপরিসীম।

আরও একটা বিষয় হলো বন্ধুর সাহচর্য শুধু পার্থিব জীবনের জন্যই হুমকি নয় পরকালের জীবনের জন্য ভয়ংকর হবে। কথায় বলে সৎ সঙ্গে স্বর্গবাস,অসৎ সঙ্গে সর্বনাশ। এজন্য পবিত্র কুরআনে বারবার সতর্ক করা হয়েছে। যার সাথে যার ওঠাবসা তার সাথেই তার হাশর-নাশর হবে এটা কম বেশি সবাই জানি কিন্তু বাস্তবে উপলব্ধি করে বন্ধু বাছাই করিনা।

সূরা সাফফাতের কয়েকটা আয়াত পড়ে সত্যি চোখ আটকে গেল,সেগুলো আপনাদের সবার জন্য তুলে ধরলাম।
৫০–৫৩ আয়াতের অর্থঃ”জান্নাতে তারা পারস্পরিক অতীত সম্পর্কে আলোচনা কালে কেউ কেউ বলবে, ‘দুনিয়ায় আমার এক সঙ্গী ছিল সে বলত,তুমি কি বিশ্বাস করো যে,মৃত্যুর পরে যখন ধূলা আর হাড়ে রূপান্তরিত হবো তারপর পুনরুত্থিত করে বিচার করা হবে?’
৫৪–৫৯. তখন তাদের জিজ্ঞেস করবে,’তোমরা কি তাকে দেখতে চাও সে এখন কোথায় আছে’?এইবলে নিচের দিকে ঝুঁকে তখন দেখাবে তার সঙ্গীকে জাহান্নামের অতলগহ্বরে।’
তখন সে বলবে,’আল্লাহর শপথ! ও তো আমাকে ধ্বংস করেই ফেলেছিল।প্রতিপালকের অনুগ্রহ না থাকলে আমিওতো এই শাস্তিভোগকারীদের একজন হতাম।’

দেখুন,আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তাঁর প্রিয় রাসূল(সাঃ) কে কি সুন্দরভাবে শিক্ষা দিয়েছেন কাদেরকে অনুসরণ করা উচিত নয়। সূরা কলম এর ১০–১৫ নং আয়াতের অর্থ  থেকে আমরাও শিখতে চেষ্টা করি —
“হে নবী!তুমি কখনো এমন কাউকে অনুসরণ কর না;
১.যে কথায় কথায় শপথ করে,
২.যে সম্মানহীন(আত্মমর্যাদাহীন),
৩.যে পেছনে নিন্দা করে,
৪.যে একের কথা অন্যের কাছে লাগায়,
৫.যে ভালো কাজে বাধা দেয়,
৬.যে অত্যাচারী,
৭.যে পাপা চারী,
৮.যে বদমেজাজি,
৯.যে অজ্ঞাতকুলশীল,ধনেজনে শক্তিমান তাকেও অনুসরণ করো না।”

জ্ঞানীদের জন্য নিদর্শন মহাগ্রন্থ আল- কুরআন। আসুন আমরা যতটা সম্ভব বুঝে কুরআন পড়ি, আর এর জ্ঞান জীবনে প্রয়োগ করে সুখি সমৃদ্ধ জীবন গড়ি।।
আল্লাহ আমাদের সেই তাওফিক দান করুন।

আরও পড়ুন