করোনায় সারাবিশ্বে মৃত্যুর মিছিল। কী ভাবছি?

আব্দুল্লাহ আল মামুরঃ

আমরা প্রত্যেকেই আমাদের পরিবার-পরিজনকে নিশ্চয়ই ভালোবাসি। করোনার এই মহাদূর্যোগে মনে হচ্ছে নিজে মারা গেলেও মা-বাবা, ছেলে-মেয়ে, স্ত্রী অর্থাৎ প্রিয় আত্মীয়-স্বজনরা যেন ভালো থাকেন। আচ্ছা কিয়ামাতের দিনে যদি তারা বিপদে পড়েন, জাহান্নামের দিকে তাদেরকে তাড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তখন আপনি কী করবেন? পারবেন তাদের কোনো উপকার করতে? বরং আপনি দুনিয়াতেই যদি তাদের জাহান্নামের আগুন থেকে বাঁচানোর চেষ্টা না করেন তাহলে নিজে ভালো আমল করলেও আল্লাহর দেয়া দায়িত্ব পালনে অবহেলা করার জন্য ঠিক তাদের সাথেই
জাহান্নামে যেতে হতে পারে! দেখি আল্লাহতা’লা এই বিষয়ে পবিত্র কোরআনের সূরা তাহরিমের ০৬ নং আয়াতে কী বলেছেন:

يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا قُوا أَنفُسَكُمْ وَأَهْلِيكُمْ نَارًا وَقُودُهَا النَّاسُ وَالْحِجَارَةُ عَلَيْهَا مَلَائِكَةٌ غِلَاظٌ شِدَادٌ لَّا يَعْصُونَ اللَّهَ مَا أَمَرَهُمْ وَيَفْعَلُونَ مَا يُؤْمَرُونَ

হে মুমিনগণ, তোমরা নিজেদেরকে এবং তোমাদের পরিবার-পরিজনকে সেই অগ্নি থেকে রক্ষা কর, যার ইন্ধন হবে মানুষ ও প্রস্তর, যাতে নিয়োজিত আছে পাষাণ হৃদয়, কঠোরস্বভাব ফেরেশতাগণ। তারা আল্লাহ তা’আলা যা আদেশ করেন, তা অমান্য করে না এবং যা করতে আদেশ করা হয়, তাই করে।

পরের আয়াতেই আল্লাহতা’লা বলেছেন,
“হে কাফের সম্প্রদায়, তোমরা আজ ওযর পেশ করো না। তোমাদেরকে তারই প্রতিফল দেয়া হবে, যা তোমরা করতে।”

আবদুল্লাহ ইবনে ওমর রা. থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ তিনি বলেছেন, “তোমরা প্রত্যেকেই রাখাল এবং তাকে তার অধীনস্থ লোকদের সম্পর্কে জবাবদিহি করতে হবে। শাসকও রাখাল।  তাকে তার অধীনস্থদের ব্যাপারে জবাবদিহি করতে হবে। নারী তার স্বামীর বাড়ি এবং তার সন্তান-সন্ততির তত্ত্বাবধায়ক তাকে তাদের ব্যাপারেও জবাবদিহি করতে হবে।”

আমাদের শুধু উচিত-ই নয় বরং এটি ফরজ কাজ যে আমরা আল্লাহতা’লার আদেশ নিষেধ মেনে চলবো এবং একই সাথে আমাদের পরিবারের অধীনস্থদের আল্লাহর পথে চলতে শেখাতে হবে এবং প্রয়োজনে কঠোরতা অবলম্বন করতে হবে। তা নাহলে অবাধ্য ও জাহান্নামী ছেলে-মেয়েদের জন্য নিজেকেও জানহান্নামের আগুনে পুড়তে হবে!

যেমন এই মুহূর্তের একটি বাস্তব উদাহরণ দেয়া যায়।
এখন পরিবারে আপনি করোনামুক্ত থাকার জন্য সব সাবধানতাই অবলম্বন করলেন কিন্তু বাচ্চাদের তা শেখালেন না কিংবা মেনে চলতে শাসন করে হলেও বাধ্য করলেন না। এখন চিন্তা করুন, বাচ্চা করোনা আক্রান্ত হলো। আপনি একই পরিবারে অবস্থান করে কি নিজে এর সংক্রমণ থেকে বাঁচতে পারবেন?

আমরা সবাই জানি এখন চলছে করোনা ভাইরাসের বিশ্বভ্রমণ, তার সাথেই চলছে পৃথিবীজুড়ে মৃত্যুর মিছিল।
মৃত্যু যেকোনো সময় আমাদের রঙিন স্বপ্নগুলোকেও সাদাকালো করে দেবে চোখের পলকেই।

আসুন, আমরা আল্লহাতা’লার দেয়া চিঠি নিয়মিত পড়ি, তাঁর ভাষা বুঝি এবং পরিবার-পরিজন নিয়ে মেনে চলে জান্নাতের অভিযাত্রী হই।

লেখকঃ কবি ও সাহিত্যিক।

আরও পড়ুন