মনোভাব পাল্টান, সংসার ঠিক রাখুন

তারিক হক

মনোভাব পাল্টান, সংসার ঠিক রাখুন । ( Change Your attitude, save your marriage )

একটি রুশ জোক মনে পড়ছে। স্বামী-স্ত্রী একসাথে অনেক বছর আছেন, কোনো রোমান্স নেই। পূর্ণিমার চাঁদকে বলেন ঝলসানো রুটি। কাটাচ্ছেন গতানুগতিকভাবে জীবন।

এক রাতে স্ত্রী স্বামীকে বললেন, ‘তুমি পাশের বাসার ভদ্রলোককে দেখেছ, যখনই তিনি অফিস থেকে ফেরেন, বউকে জড়িয়ে ধরে চুমু খান। তুমি কেন পারো না?’

স্বামী অনেকক্ষণ অবাক হয়ে বউয়ের দিকে তাকিয়ে রইলেন। তারপর বললেন, ‘কিভাবে তুমি আশা করো যে আমি একজন অচেনা-অজানা মহিলাকে চুমু খাব?’

আপনার দৃষ্টিভঙ্গি দাম্পত্য জীবনের সুখের চাবি। বছরের পর বছর বিজ্ঞানীরা গবেষণা করেছেন দাম্পত্য জীবনের সমস্যা নিয়ে। তাঁরা বের করেছেন কয়েকটি নীতি, যাতে স্বামী-স্ত্রী সুখে থাকেন।

১. সম্মান করুনঃ স্বামী বা স্ত্রী দুজন দুজনকে সম্মান করবেন। শুধু একবার-দু’বার নয়, সব সময়, প্রতিদিন।

মনে রাখবেন, আপনি যেমন অন্যদের কাছ থেকে শ্রদ্ধা আশা করেন, আপনার পার্টনারও ঠিক একইভাবে আপনার কাছ থেকে আশা করেন শ্রদ্ধা।

২. ক্ষমা করার দৃষ্টিভঙ্গিঃ পার্টনারকে ক্ষমা করতে শিখুন। বউকে বকা দিয়েছেন, বউ কিছুক্ষণ পর শাশুড়িকে ফোন করল। শাশুড়ি আবার আপনাকে ফোন করে জানাল। আপনার মর্যাদার ব্যাপার।

বউকে কি এ ধরনের ঘটনার পর ক্ষমা করা যায়?

নিশ্চয়ই। ক্ষমা করুন এবং ভুলে যান।

আপনার স্বামী না বলে তাঁর বোনের জন্মদিনে দামি একটি টেলিভিশন উপহার দিয়েছেন। আপনার বারবার মনে হচ্ছে, আমাকে একবারও জিজ্ঞেস করল না!

ক্ষমা করুন এবং ভুলে যান। শুধু ভুলে গেলেই চলবে না, ক্ষমা করতে হবে।

আমেরিকার এক ক্যান্সার হাসপাতালে একবার রিসার্চ হয়েছিল ১৪ হাজার রোগীকে নিয়ে। সবারই দ্বিতীয়বার ক্যান্সার হয়েছিল। তাদের জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, ‘আপনি কি আপনার শত্রুকে / বন্ধুকে ক্ষমা করতে পারবেন (যে আপনার জীবনকে বিষিয়ে তুলেছিল)?

৯০%-এর বেশি উত্তর দিয়েছিল, ‘না।’

পাঠক, আপনি হয়তো আমাকে বিশ্বাস করবেন না, কিন্তু এটা সত্যি কথা। ক্ষমা করুন এবং ভুলে যান।

দেখবেন আপনার নিজের কাছে খুবই ভালো লাগছে।

লেখকঃ মোটিভেশনাল লেখক ও প্রবাসী বাংলাদেশী, জার্মানি

 

আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.