বিদায় বেলার বার্তা বিষাদ

নাজমা বেগম নাজু

দিন শেষে পুরোয় যখন সূর্যমুখী রোদ
অভিমানী বিকেল জুড়ে অস্ত রোদের নীল-
বিষন্ন গেয়ে উঠে গান– এতটা অল্প সময়
কেন থাকে ডানামেলা দিন? কেন নিমেষেই শেষ হয়
মায়াবী জীবন- জীবন পাড়ের ক্ষণ?
নীল কুয়াশায় নিমগ্ন সময়
ঘাসে ঝরে শঙ্খ নীহার চাঁদ
দুরের আকাশে বাংলাদেশের গান
জোছনা নিগূঢ় ছন্দ কথন রাত জাগে,
ঘাস বনে পৌষের লেবুরং রোদ——-।
আমি বিদায় বার্তা জানাতেই
কাকাবান্দরো বোজা চোখ মেলে দু’ হাত বাড়াই
রাঙা ধূলোর পথ কিনারে দাঁড়ায় একা।
যেন এক জনম দুঃখী কালো মেঘ কিশোরীর
অবনত মুখ।কখনো বিষন্ন ডানায় ওড়া
আফ্রিকার রোদপোড়া মরা ঘাসের শরীর বেয়ে
উথলায় ঘনমেঘ।এক বরষার অবাধ জলরাশি।
ভেজা পাতার মত বরম মিষ্টি সুরে
ডাকছে আমার স্বজন আপন সবুজ বাংলাদেশ।
তবু আহত বাতাস বিষন্ন কেঁদে ওঠে-
সেন্ট্রল আফ্রিকা বিরামহীন বলে
এখুনি যেওনা- থেকে যাও,
আজো আর্ত মানব কাঁদে।
সময় হলেই যেতে হয়–
যেমন ফিরে যায় কাঁশবন
গোলাপ শুভ্র পালক ফেলে ফেলে।
যেতে হবে তাই-
শান্তিরক্ষীর পোশাক ছেড়ে
আবারো আমার তমাল ছায়ার হিজল সবুজ
সুবাসিত সুখ নীড়ে।
তবু আজন্ম আমার প্রর্থনায় রবে তুমি
হৃদয় নীড়ের সবটুকু শুভকামনায়।
তুমি ভাল থেকো কাকাবান্দরো-
আফ্রিকার আকাশ বাতাস
বুনো মেঘ খররোদ,
ধূসর ধবল রোদপোড়া মেঘভেজা লোকালয়।
রাঙামাটির নিথর দহন পথ
আজন্ম অনেক ভাল থেক তুমি।
আর মনে রেখো আমাদেরও–
যখন বুকের পাঁজর ঘেঁষে ছিল
ব্যানমেড-৫,
আর মনে রেখো
মনে রেখো
হিজল তমাল সবুজ আমার
বাংলাদেশের নাম।

( কাগাবান্দরো, সেন্ট্রাল আফ্রিকা)

 

আরও পড়ুন
1 টি মন্তব্য
  1. Arshad Ullah বলেছেন

    সুদূর সেন্টার আফ্রিকায় থেকে স্বপ্নের স্বদেশ। প্রবাসে প্রবাসীর মনোব্যঞ্জনা। ভাল লেগেছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.