সূর্যোদয়

ফাহমিদা রহমান

আমি দেখেছি, রাতের আকাশে
দূরের সবকিছু আচ্ছন্ন ঘন কুয়াশায়,
বোধ করি, আমাদের আঁজুমান ও আচ্ছন্ন
ঘন অন্যায় আর দুর্নীতির ধোঁয়াশায়।
কিন্তু এখনো দেখিনি, সে দুর্নীতির
কুয়াশা কাটিয়ে উঠতে কাউকে এগিয়ে
গিয়ে ধোঁয়াশা গুলো দমাতে!
সদা সকলের হৃদয় পরনির্ভর হয়ে
রয়ে গেল অগোচরে।
ঘন কুয়াশায় যেমন আজকের
আকাশের বুকফাটা চিৎকারে!
সকলের হোক জানা-অজানা
ন্যায় নীতির রাজধানী,
সে রাজনীতিই যদি দুর্নীতিতে ডুব
ক্যামনে তা মানতে পারি?
চাকরীতে, যোগ্য যে জন, পায়না আসন
আর এদিকে অসৎ পথের পথচারীরা প্রাপ্ত হয়
ম্যানেজারের সিংহাসন।
সে আসনের অপব্যবহারের শিকার হয়
শীর্ণ দেহের জীর্ণ হৃদয়!
এমন আঁজুমান কি তব প্রত্যাশাময়?
প্রশ্ন আমার স্থীরতাময় নয়!
ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তবে কি পাবে?
নীতির রাজারা তো সব চেয়ে চেয়ে দেখে’,
নীতির কথা গুলো সব তখন
ভেতরেই দেয় রেখে!
ঘন কুয়াশার ধোঁয়াশা কাটিয়ে
উঠুক সূর্যোদয়,
বিভেদের সব রেখা মুছে দিয়ে
এড়িয়ে চিত্তের ভয় ‘,
তবে আজ থেকে, তা হোক চির অক্ষয়!

লেখকঃ কবি।

আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.