আপাদমস্তক ঢাকা মেয়ে যেভাবে পার্কের দোকানে

আল মারুফ, রাজশাহী থেকে  

রাজশাহী মহানগরীর হাই টেক পার্ক সংলগ্ন আই-বাঁধের উপর ছোট্রো মনোহারি দোকান নিয়ে বসে আছে আপাদমস্তক ঢাকা এক মেয়ে। কৌতুহল বসত দোকানে গিয়ে বেশ কিছু বিষয় জানতে চাইলাম- রিপলাইগুলো হৃদয় বিদারক তবে অনুপ্রেরণারও বটে।
মেয়েটি বললো, “গত ১৫-১৬ দিন হলো দোকান দেওয়া। আল্লাহর রহমতে ভালোই চলছে। আমার পরিবারে ৪ জন সদস্য, আব্বা-আম্মা ছোটো ভাই ও আমি।ছোটো ভাই ক্লাস ফোরে পড়ে আর আমি মিশন বালিকা উচ্চ-বিদ্যালয় থেকে এবার এস এস সি পাস করেছি, ইন্টারে ভর্তির জন্য আবেদনও করেছি।বাবা কাজ-কাম করতেন। হঠাৎ তিনি প্যারালাইজড হাওয়ায় সংসারের হাল আমাকেই ধরতে হয়েছে।”
এতো ছোটো বয়সে তাঁর সংগ্রামী জীবন সত্যই অনুপ্রেরণার। সেম বয়সের একজন ছেলের জন্য সহজ হলেও একজন মেয়ের জন্য তা কল্পনাতীত। আর সবচেয় আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে যেখানে মেয়েরা দিন দিন পর্দার প্রতি অনিহা সেখানে কিন্তু সে তার পর্দা মেন্টেইন্স করেই সব কিছু করছে।

আরও পড়ুন