এরদোয়ানের স্ত্রীর সাথে আমির খানের সাক্ষাতে ভারতীয় ভক্তরা নাখোশ

আন্তর্জাতিক সংবাদ

এরদোয়ানের স্ত্রীর সাথে আমির খানের সাক্ষাতের ঘটনায় বেশ দুঃখ প্রকাশ করেছেন আমির খানের ভারতীয় ভক্তদের অনেকে । সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এ  নিয়ে বেশ আলোচনার ঝড় উঠেছে ।  ভারত-তুরস্কের সম্পর্কের অবনতির সময়ে খান ও এরদোয়ানের স্ত্রীর বৈঠকে বিপুল সংখ্যক ভারতীয়রা হতাশা প্রকাশ করেছেন।

সুপারস্টার আমির খান ও কারিনা কাপুর খান অভিনীত “লাল সিং চদ্দা” ছবিটি ২০২১ সালের ক্রিসমাসে মুক্তি পাবে বলে নির্মাতারা সোমবার ঘোষণা করেছিলেন।

১৯৯৪ সালের ক্লাসিক ছবি “ফরেস্ট গাম্প” -র রিমেক হিসাবে “লাল সিং চাদ্ধা” সিনেমার শুটিংয়ের বিকল্প লোকেশন খুঁজতে গত সপ্তাহ থেকে বলিউডের দুর্দান্ত অভিনেতা তুরস্কে ছিলেন।  আর সেই সময় তিনি তুরস্করে প্রেসিডেন্ট এরদোইয়ানের স্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন ।

শনিবার বলিউড অভিনেতা চিটচ্যাটের জন্য তুরস্কের ফার্স্ট লেডির সাথে দেখা করার পর আমির খান এবং এরদোয়ান টুইটারে অন্যতম শীর্ষ ট্রেন্ড হয়ে উঠেছেন। খানের আসন্ন ছবি ‘লাল সিং চদ্দা’ গতকাল সোমবার  ভারতীয় মানুষের আলোচনার শীর্ষ বিষয়বস্তু হয়ে উঠে।

পূর্বে ভারত ও তুরস্কের মধ্যকার সবকিছু বেশ ভালই ছিল । কিন্তু ফেব্রুয়ারিতে নয়াদিল্লিতে সিএএ বিরোধী ও বিরোধী আন্দোলনকারীদের মধ্যে সংঘর্ষের পরে তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রেসেপ তাইয়েপ এরদোগান প্রকাশ্যে ভারতের সমালোচনা করেছিলেন। এছাড়া ধর্মপ্রাণ মুসলমান এরদোয়ান ভারতীয় সংবিধানে ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদের মাধ্যমে কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদাদানকারী অনুচ্ছেদটি বাতিল করার পরে কাশ্মীরের বিষয়ে পাকিস্তানকে সমর্থন জানিয়েছিল ।

আর এর ফলে  ভারত ও তুরস্কের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে এবং  দুটি জাতির মধ্যে ভাল সম্পর্কটি সংবেদনশীল পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে।

এই সম্পর্কের অবনতির সময়ে আমির খানের তুরস্ক ভ্রমণ, সেখানে শুটিং এবং এরদোইয়ানের স্ত্রীর সাথে সাক্ষাতের কারণে অনেক ভক্ত আমির খানের প্রতি চরম মাত্রায় অসন্তুষ্ট  এবং অনেকেই আমির খানের  “লাল সিং চাদ্ধা”  ছবি না দেখার এবং অপছন্দ করার আহবান জানিয়েছেন ।

কেউ কেউ বলেছেন পৃথিবীতে ২৫০ টির মতো দেশ থাকতে কেন আমির খানকে তুরস্কে শুটিং করতে যেতে হবে?

এরদোয়ানের স্ত্রী টুইট বার্তা

এরদোয়ানের স্ত্রী টুইটারে বেশ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আমির খানকে । আমির খানের সাথে সাক্ষাৎ করে তিনি বেশ আনন্দিত তা বলেছেন টুইট বার্তায় ।

সূত্রঃ দ্যা ইকোনমিক টাইমস

আরও পড়ুন