চলে গেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী

নিউজ ডেস্কঃ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে  সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিক কামাল লোহানী মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ শনিবার সকাল ১০টার পরে বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয় (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। কামাল লোহানীর ছেলে সাগর লোহানী প্রথম আলোকে এ কথা জানান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।
অসাম্প্রদায়িক এবং সাম্য চিন্তায় বিশ্বাসী কামাল লোহানী এক দ্রোহী মানুষের নাম।  সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব, সর্বোপরি তিনি আজীবন অন্যায়-অপশাসনের বিরুদ্ধে ছিলেন নিরাপস।
আজ চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

কামাল লোহানী (২৬ জুন ১৯৩৪ – ২০ জুন ২০২০) বাংলাদেশের প্রখ্যাত সাংবাদিক। কামাল লোহানী নামেই পরিচিত হলেও তার পারিবারিক নাম আবু নঈম মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খান লোহানী।
কামাল লোহানী ‘দৈনিক আজাদ’, ‘দৈনিক সংবাদ’, ‘দৈনিক পূর্বদেশ’, ‘দৈনিক বার্তা’সহ বিভিন্ন পত্রিকার কর্মরত ছিলেন। তিনি সাংবাদিক ইউনিয়নে দুদফায় যুগ্ম-সম্পাদক এবং ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি হন। তিনি গণশিল্পী সংস্থার সভাপতি ছিলেন। ১৯৬২ সালে স্বল্পকাল কারাবাসের পর কামাল লোহানী ‘ছায়ানট’ সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। সাড়ে চার বছর এই দায়িত্ব পালন করেন। এরপর মার্কসবাদী আদর্শে ১৯৬৭ সালে গড়ে তোলেন ‘ক্রান্তি’। তিনি বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী’র সভাপতি ছিলেন চার বছর (২০১২ ডিসেম্বর – ২০১৬ ডিসেম্বর)। বর্তমানে উদীচীর কেন্দ্রীয় কমিটির এক নাম্বার সদস্য ছিলেন।

আরও পড়ুন