বিশেষ চিঠি

বাবার কাছে ছেলের বিশেষ চিঠি।
শ্রদ্ধেয় বাবা,
আমার পক্ষ থেকে বসন্তের শুভেচ্ছা নিও।
আমি বেশ ভাল আছি, আজীবন আমাকে যে শিক্ষা দিয়েছ আর তার প্রতিফলন পাচ্ছি। বাংলাদেশের ১০ টা ভাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মত আমার প্রতিষ্ঠানও সত্যি দৃষ্টি নন্দন। বাবা, ভবানী গঞ্জ কারিগরি ব্যবস্থাপনা কলেজে পড়তে পেরে নিজেকে গর্ব করি। এখানে আছে খেলাধুলার জন্য নিবিড় খেলার মাঠ। কম্পিউটার অনুশীলন ১০০%, ছায়া পাবার জন্য ছোট – বড় গাছ,গাড়ি রাখার গ্যারেজ,সুন্দর বাউন্ডারি, সিসি ক্যামেরা বসানো রয়েছে বাবা একটুও ক্লাস ফাঁকি দেবার জো নেই।
এ কলেজের অধ্যক্ষ স্যার আমার প্রিয় শিক্ষক। সু যোগ্য অধ্যক্ষ আতাউর রহমান শিবলী স্যার খুবই পরিচ্ছন্ন মানুষ।নামাজের সময় হলেই কলেজ মসজিদে তার সক্রিয় উপস্থিতি আমাদের মুগ্ধ করে। মাঝে মাঝে স্যার আমাদের পড়াশোনার খোঁজ নেন।শরীরের কোন সমস্যা হলে মেডিকেল ট্রিম মহূর্তের মধ্যে উপস্থিত। সুন্দর ক্যারিয়ারের সকল পরামর্শ আমার স্যার আমাকে দেন। তোমার অনুপস্থিতি মোটেও আমাকে ব্যতিথ করেনা। স্যারের সাথে ফোনে কথা বলি,কিছু সময় অর্থিক সহযোগিতা লাগলে স্যারের কাছ থেকে নেই। মনে হয় বাবা, উনার ২৫০ ছেলে মেয়ে। উনি আইনস্টাইনের কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে বলেন, “শিক্ষা ঐ জিনিস যা দেহ,মন ও মন প্রবৃত্তির পরিবর্তন সাধন করে” আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকনের সেই উক্তি তার কাছ থেকে শুনে হৃদয় ছুঁয়ে গেছে ” এমন শিক্ষা কাউকে দিওনা যা তোমার জীবনে কখনো কাজে আসেনি ”
এই প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষা সমাপনী করে বুয়েট বা রুয়েটে ভর্তির পথ অনেকটাই উন্মোচিত হবে বলে আমার বিশ্বাস।

ভাল থেক বাবা নিজের প্রতি খেয়াল রেখ। আমার আর আমার স্যারের জন্যে দোয়া করবে। মাকে আমার সালাম দিও।

ইতি
তোমার ছেলে আবির

আব্দুল মতিন -কবি ও সাহিত্যিক

 

আরও পড়ুন