লন্ডনের নির্মাতার হাতে নির্মাণ হচ্ছে হুমায়ূন আহমেদের মিসির আলি ভিত্তিক ওয়েব সিরিজ

মহীয়সী, ইংল্যান্ড প্রতিবেদকঃ

লন্ডনে বসবাসরত লেখক, স্ক্রিপ্ট রাইটার এবং নির্মাতা নাফে মোহাম্মাদ এনাম জনপ্রিয় কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্ট অনন্য চরিত্র মিসির আলির উপর ওয়েব সিরিজ তৈরির কাজ হাতে নিয়েছেন ।  তিনি “আনকেনি এপিসডস” নামে একটি প্রোজেক্টের অধীনে এই কাজ করছেন । এই প্রোজেক্টের প্রতিটি এপিসডেই থাকবে নতুন নতুন গল্প । এই প্রোজেক্টের অধীনে তার মিসির আলি সিরিজের ‘ভয়’ নির্মাণ হওয়া মাত্রই আমাজনের প্রাইম ভিডিওতে আসবে।

হুমায়ূন আহমেদ যখন জীবিত ছিলেন তখনই হুমায়ূন আহমেদের কাছ থেকে নির্মাতা এনাম মিসির আলির ‘ভয়’ এর গল্পের উপর ভিডিও নির্মাণের লিখিত অনুমুতি নিয়েছিলেন । নির্মাতা এনামের সময়ের অভাবে তার ভিডিও নির্মাণের কাজ হুমায়ূন আহমেদের জীবদ্দশায় শুরু করতে না পারলেও এখন বেশ নড়ে চড়ে বসেছেন কাজ এগিয়ে নেয়ার জন্য । সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে  এই ওয়েব সিরিজগুলো অদূর ভবিষ্যতে কোন টিভি চ্যানেলেও প্রচারিত হতে পারে ।

এ পর্যায়ে তিনি  ‘ভয়’ এর জন্য অভিনয়শিল্পী নির্বাচনের কাজ করছেন । স্ক্রিপ্ট তৈরির কাজ প্রায় শেষের দিকে । নির্মাতা মহীয়সীকে জানিয়েছেন যে-‘মিসির আলির ‘ভয়’ এর স্ক্রিপ্ট লেখার কাজটা প্রায় শেষের পথে। আমি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি তিনি যেন আমাকে কাজটি সুন্দরভাবে কমপ্লিট করে দুনিয়ার তাবৎ সবাইকে নিয়ে উপভোগ করার সুযোগ দেন!’ মিসির আলি নির্ভর ওয়েব সিরিজ আমাজনের প্রাইম ভিডিওতে ইংরেজি সাবটাইটেল সহ থাকবে এবং পরবর্তীতে এটি বিভিন্ন ভাষায় ডাবিং হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে লেখক মহীয়সীকে জানিয়েছেন ।

মিসির আলি বাংলাদেশের প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক হুমায়ূন আহমেদ সৃষ্ট একটি জনপ্রিয় রহস্যময় চরিত্র। মিসির আলির কাহিনীগুলো রহস্যমাত্রিক। মিসির আলির কাহিনীগ‌ুলো ঠিক গোয়েন্দা কাহিনী নয়, কিংবা ‘ক্রাইম ফিকশন’ বা ‘থ্রিলার’-এর মতো খুনী-পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়া নয়, বরং মনস্তাত্ত্বিক, বিজ্ঞাননির্ভর এবং প্রচন্ড যুক্তিনির্ভর কাহিনীর বুনটে বাঁধা। বরং অনেক ক্ষেত্রে একে রহস্যগল্প বলা চলে। চারিত্রিক দিক দিয়ে মিসির আলি চরিত্রটি হুমায়ূন আহমেদের আরেক অনবদ্য সৃষ্টি হিমু চরিত্রটির পুরোপুরি বিপরীত। উপন্যাসের কাহিনী অনুসারে মিসির আলি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের “মনোবিজ্ঞান” বিভাগের একজন সহযোগী অধ্যাপক (খন্ডকালীন)। তিনি মানুষের মন, আচরণ, স্বপ্ন এবং নানাবিধ রহস্যময় ঘটনা নিয়ে অসীম আগ্রহ রাখেন। মিসির আলি চরিত্রে হ‌ুমায়ুন আহমেদ পরস্পর বিপরীতধর্মী দুটি বৈশিষ্ট্য ‘যুক্তি’ এবং ‘আবেগ’কে স্থান দিয়েছেন ।হুমায়ুন আহমেদের নিজের ভাষ্যে, ‘মিসির আলি এমন একজন মানুষ, যিনি দেখার চেষ্টা করেন চোখ বন্ধ করে। যে পৃথিবীতে চোখ খুলেই কেউ দেখে না, সেখানে চোখ বন্ধ করে দেখার এক আশ্চর্য ফলবতী চেষ্টা।’

মিসির আলি কেন্দ্রিক সিরিজগুলো হচ্ছে দেবী, ভয়, বৃহন্নলা, নিশীথিনী, নিষাদ, অন্যভুবন, মিসির আলির অমীমাংসিত রহস্য, বিপদ, অনীশ, মিসির আলি অমনিবাস-১, মিসির আলি অমনিবাস-২, হিমুর দ্বিতীয় প্রহর (হিমু চরিত্রের সাথে মিসির আলির সাক্ষাৎ),তন্দ্রবিলাস, আমিই মিসির আলি, বাঘবন্দী মিসির আলি, হরতন ইশকাপন, মিসির আলির চশমা, খেন কবি কালিদাস, মিসির আলি আপনি কোথায়? মিসির আলি UNSOLVED, যখন নামিবে আঁধার।

মিসির আলী সিরিজের প্রথম বই দেবী বের হয় ১৯৮৫ সালে । এই দেবীর উপর নির্মিত হয়েছে জয়া আহসান প্রযোজিত ও অভিনিত ছবি দেবী । এই ছবিতে জয়া আহসানের সাথে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী ।বর্তমানে নাফে মোহাম্মদ এনাম ‘ভয়’ সিরিজ নিয়ে কাজ করছেন । ভয় হচ্ছে চোখ, জিন- কফিল এবং সঙ্গিনী নামক তিনটি গল্পের সংকলন ।

নাফে মোহাম্মদ এনাম তরুণ হলেও বেশ অবদান রাখছেন সাহিত্যে । তিনি “হরর পত্রিকা” নামে একটি পত্রিকা বের করেন, যেটি  নিয়মিত আমাজন থেকে প্রকাশিত হয় ।  বাংলা ভাষায় প্রকাশিত এটিই প্রথম হরর ম্যাগাজিন । বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের  বাংলা ভাষাভাষী পাঠকরা এই হরর  পত্রিকা পড়তে পারেন। কলকাতায় তার এই হরর পত্রিকার বেশ জনপ্রিয়তা রয়েছে । তিনি বেশ কয়েকটি হরর ও রহস্য গল্পের বই লিখেছেন । তার  অলৌকিক প্রহর,৯ টি রহস্য গল্প, অস্তিত্ব, ডরর কিচ্চাসহ বেশ কয়েকটি রহস্য ও থ্রিলার ধর্মী গল্পের বই পাঠকমহলে বেশ সমাদৃত হয়েছে। অল্প বয়সেই প্রবাসী এবং রহস্য ও হরর লেখক হিসাবে পরিচিতি পেয়েছেন। ছোটবেলা থেকে রহস্য, গোয়েন্দা এবং থ্রিলার ধর্মী সাহিত্য পাড়তে বেশ আগ্রহী ছিলেন । তার ‘ডরর কিচ্চা’  গল্পের বইটি  প্রথম ইংরেজি ভাষায় অনুদিত হয়েছে । ডরর কিচ্চা প্রথম ইংরেজি ভাষায় “Terrific Tales”  নামে  আমাজনে প্রকাশ হয়েছে ২০১৪ সালে । এরপর  Royal Bengal Horror, You Name It, Survival সহ নানা ধরণের গল্পের বই ইংরেজিতে প্রকাশ হচ্ছে । তার বইগুলো আমাজন কিনডলে পাওয়া যাচ্ছে । আমাজনে তার বইয়ের লিঙ্ক-https://www.amazon.com/Nafee-Muhammad-Anam/e/B00W3WQD0Y?ref_=dbs_p_pbk_r00_abau_000000

অন্যতম জনপ্রিয় লেখক  ডা. আবদুল হাই মিনার স্যার আমাকে তাঁর কুটি কবিরাজ চরিত্র নিয়ে লেখা নতুন ভুতূড়ে বিজ্ঞান ধাঁচের গল্পের বই ‘ওগলুলু’ ঊৎসর্গ করেছেন নাফে মোহাম্মদ এনামকে এবং ঘোষণা দিয়ে দিয়েছেন  যে তার পরবর্তী সব কুটি কবিরাজের বই তিনি নাফে মোহাম্মদ এনামকে ঊৎসর্গ করে যাবেন ।

এর আগে বাংলাদেশে হরর ঘারানার তেমন কোন নাটক, সিরিজ বা সিনেমা নির্মাণ হয়নি । নামে মোহাম্মদ এনাম এখানেই কাজ করতে চান এবং বাংলাদেশী দর্শকদেরকে জন্য নতুন ধারার বিনোদনের ব্যবস্থা করতে আগ্রহী । নির্মাতা এনাম লন্ডনে বাস করেও বাংলাদেশের দর্শকদের নিয়মিত রহস্য ও হরর ধাঁচের নাটক, সিরিজ উপহার দিতে চান  ।

 

আরও পড়ুন