ফিফার সেরা ফুটবল ফ্যান এওয়ার্ড পেলেন এক অন্ধ ছেলের মা

লাবিব ইসলাম লিওন

আমরা সকলেই ফুটবল ফ্যান ভালবাসি ফুটবলকে আর আমাদের মতো সাধারণ ফুটবল ভক্তদের মাঝ থেকেই ফিফা প্রতিবছর সেরা ফুটবল ফ্যান এওয়ার্ড নির্বাচিত করে থাকেন এ বছরের সেরা ফুটবল ফ্যান এওয়ার্ডটি জিতে নিলেন সেই অটিস্টিক ও অন্ধ ছেলেটির মা, যিনি খেলা চলাকালে তার অন্ধ ছেলেকে খেলার দৃশ্য বর্ণনা করতেন । ছেলেটির নাম নিকোলাস আর তার মায়ের নাম সিলভিয়া গ্রেকো। ছেলেটি তার মায়ের সাথে স্টেডিয়ামে আসতো এবং মা তার তাকে কানে কানে খেলা সম্বন্ধে টাইম টু টাইম সব বলেই যেতেন। মাঠে কে খেলছে, কিভাবে খেলছে, কে কোথায় খেলছে ইত্যাদি ইত্যাদি। এবং ছেলেটি সেটা ফিল করতো

নিকোলাস ও তার মা ব্রাজিলের নাগরিক । নিকোলাস তার জন্মের সময় ছিল একজন পাঁচ মাসের প্রিমাচিউর বেবি । সে একজন অন্ধ ।  চোখে কিছু দেখতে না পেলেও মায়ের সাথে ফুটবল খেলা দেখতে আসতো সব  সময় । মা তাকে ফুটবল খেলার দৃশ্য বর্ণনা করে শুনাতেন । তিনি এক রেডিওর সাক্ষাৎকারে বলেন- “আমি কোন অফিসিয়াল বর্ণনাকারী নই । আমি কেবল খেলার মাঠের পরিস্থিতি তাকে বর্ণনা করতাম । কোন খেলোয়াড় কেমন রং করেছে চুলে, কার বুটের রং কেমন, কে লম্বা স্লিভস পরেছে এসবও থাকতো আমার বর্ণনায় ।”

গত বছর ফুটবল খেলার সময় স্টেডিয়ামে দর্শক গ্যালারিতে এক টিভি রিপোর্টার খেয়াল করেন যে এক মা তার অন্ধ ছেলেকে ফুটবল খেলার দৃশ্য বর্ণনা করছেন । তিনি ক্যামেরা ম্যানকে দৃশ্যটা ধারণ করতে বলেন ।

খেলা শেষে নিকলাস আর তার মা চলে যায় । তারপর সেই ফুটেজ সারা ব্রাজিলে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে দেখানো হয় । আর সেই দৃশ্য ভাইরাল হয়ে যায় ।

নিকোলাসের মা গ্রেকো CBN radio তে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন –“সেই সময় যে লোক ব্রডকাস্টিং করছিলেন তিনি সবাইকে বলেন যে এখানে একজন মা আছেন যিনি তার সন্তানের জন্য খেলার এই সুন্দর দৃশ্য বর্ণনা করছেন এবং তারপর এই দৃশ্য ভাইরাল হয়ে যায় ।”

তিনি আরও বলেন “আমি জানতাম না যে দৃশ্যটা ধারণ করা হয়েছে । আমরা স্টেডিয়াম ছেড়ে চলে যাওয়ার পর জানলাম যে লোকেরা এই বিষয় নিয়ে কথা বলছে ।”

 

 অনেকের কাছে ফুটবলটাই ভালোবাসা এওয়ার্ড জেতার পর ছেলেটা কেঁদে ফেলেছে। দৃশ্যটা দেখে আমিও কেঁদে ফেলেছিলাম

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সূত্রঃ ইন্ডিয়া টুডে

 

আরও পড়ুন