সরাইলে বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তাদের পাশে ‘গরীবের বন্ধু’

এম মনসুর আলী

সরাইল(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকে

এদের কেউ বিধবা, কেউ স্বামী পরিত্যাক্তা। ওরাই পরিবারের কর্তা।ওরাই রোজগার করে সংসার চালায়। সবাই দর্জির কাজ করে।গরীবের বন্ধু সংগঠনই তাদেরকে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে সেলাই কাজ শিখিয়ে সেলাই মেশিন দিয়েছে। করোনার কারণে এদের হাতে কাজ নেই।ওরা এখন প্রায় কর্মহীন। রোজগার না থাকার কারণে সীমাহীন কষ্টে দিন কাটছে পরিবারগুলোর।

গত সপ্তাহে মঙ্গলবার  দুপুরে

করোনার প্রভাবে কর্মহীন বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তা ওই ২০ টি পরিবারের মাঝে ১০ দিনের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। প্রতিটি পরিবারকে তাদের বাজারের তালিকা অনুযায়ী খাদ্যসামগ্রী কিনে দেয়া হয়েছে।

সরাইল উপজেলার অরুয়াইল বাজারে ইজা ডেন্টাল প্লাসের সামনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এ খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান সমন্বয়কারী সংবাদকর্মী এম মনসুর আলী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবীরা।

করোনার শুধু থেকে প্রায় আড়াই মাস যাবৎ এই ২০ টি অসহায় কর্মহীন পরিবারকে নিয়মিত খাদ্যসামগ্রী দিয়ে আসছে সংগঠনটি।

দূর্যোগ আসার পর থেকে প্রায় ৫০০ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে এই গরীবের বন্ধু । আর এই ২০টি বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তা পরিবারকে নিয়মিত খাদ্য সহায়তা  দিয়ে আসছে।

গরীবের বন্ধু সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা এম মনসুর আলী বলেন,করোনা দূর্যোগ আসার পর আমরা প্রায় ৫০০ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছি। কিন্তু এই ২০ বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তা পরিবারের প্রতি আলাদা নজর রাখছি। তাদেরকে নিয়মিত সাহায্য করছি। দূর্যোগ কালীন সময়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে পেরে খুবই আনন্দ লাগছে। করোনা ভাইরাসের প্রভাব শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাবো।

 

আরও পড়ুন