যেভাবে উদ্যোক্তা হয়ে উঠলেন একজন থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার!

জাতীয় ডেস্ক

থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোসাঃ নাসরিন সুলতানা । পড়াশোনা শেষ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে । তিন সন্তানের জননী ।  তিনি ঢাকার লালবাগের থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হিসাবে আছেন ।  কিন্তু পড়ালেখার পাশাপাশি ছোট বেলা থেকেই তার স্বপ্ন ছিল কিছু করার । সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন তিনি কীভাবে করে যাচ্ছেন তা শুনি তার নিজের মুখেই-

থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোসাঃ নাসরিন সুলতানা

“কিছু কিছু গল্প শুরু হয় অল্প অল্প দিয়ে, শেষ হয় …..!!!!! আসলে আমার নিজের কিছু অল্প অল্প গল্প আছে যা আমি লালন করি আমার মতো! ছোট বেলা থেকেই আমার মা আমাদের শিখাত পড়াশোনার পাশাপাশি কীভাবে নিজের সখের কাজগুলো নিজে করতে হয়! একটা দুইটা করে জমিয়ে কী করে ছোট থেকে বড় কাজ করা যায়! নিজের চাওয়া পাওয়া কীভাবে নিজেই পূরণ করা যায়।

তাই পরীক্ষার ফাঁকে ফাঁকে  শিখাতেন হাতের কাজ, সেলাই করা বিভিন্ন অপ্র‌য়োজনীয় জিনিস দিয়ে প্রয়োজনীয় কিছু করা! নিজের পড়ার টেবিলটা কতো সুন্দর রাখা যায় আরো কত কি? যাই হোক আমি সব সময় চাইতাম নিজে কিছু করা যেটা হবে শুধু আমার এখানে অনেক লোক থাকবে যারা আমার মতো নিজের কাজ নিজে করবে এবং তাদের ছোট ছোট স্বপ্ন নিজেই পূরণ করবে! কিন্তু সময় আর সুযোগ এর অভাবে করা হয়ে উঠেনি।

কিন্তু একদিন আমার বর আমাকে বলল তুমি সবাইকে এতো প্রশিক্ষণ দাও, তোমার বাচ্চাদের টিভি দেখা, মোবাইল দেখা বন্ধ কর। তখন মনে হলো এমন কিছু করতে হবে যাতে ওরা সেসব নিয়ে ব্যাস্ত থাকবে আর টিভি আর মোবাইল দেখতে চাইবে না!

সেই চিন্তা থেকেই একদিন মার্কেটে যাই এবং কিছু পুঁথি ও মেটেরিয়াল কিনে নিয়ে আসি। দেখি দারুণ কাজ হয়েছে বাচ্চারা সারাক্ষণ এসব নিয়ে ব্যাস্ত থাকে! যাই হোক আস্তে আস্তে কাজ করতে থাকি এবং সবার সাপোর্ট পাই! তখন একটা পেইজ খুললাম দেখলাম আলহামদুলিল্লাহ অনেক ভাল হচ্ছে!

আর তখনই মাথায় আসল আমি আর পিছনে না গিয়ে কীভাবে আগানো যায়? যেহেতু আমি চাকরি করি আমার বাচ্চারা ছোট। হয়তো সেভাবে সময় দিতে পারব না  কিন্তু যেটুকু পারি সেটা নিয়েই হয়ে গেলাম একজন উদ্যোক্তা, তৈরি হল আমার SARA Fashion Accessories.

আর আমার এখন টার্গেট হচ্ছে এর লাভের এক অংশ দিয়ে তৈরি করব এতিম বাচ্চাদের জন্য কর্মসংস্থান, যারা নিজেরাই হবে এক একজন উদ্যোক্তা। আমি বিশ্বাস করি আমার SARA একদিন অনেক বড় হবে, সবার ভরসার জায়গা করে নিবে যদি আপনারা পাশে থাকেন!

আপাতত শুধু গহনা দিয়ে শুরু! আমি কোন ব্যাবসা করার জন্য এটা শুরু করিনি। ব্যাবসায়ী তৈরি করার জন্য শুরু করা !

আর হে আমার পরিচয়টা ছোট করে একটু দিতে চাই এজন্য যে এখানে সবাই হয়ত আমাকে চিনেন না। আমি ছোট একটা চাকরি করি, থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, আমার কাজই মানুষের সেবা করা! আমি তাই করি যা আমার করা উচিত! আশাকরি আপনারা আমাকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ করে দিবেন ইনশাআল্লাহ!”

SARA Fashion Accessories থেকে পন্য কিনলে আপনি কি কি সুবিধা পাবেন?

১) প্রথম যেটা পাবেন সেটা হচ্ছে গুনগতমান মান। SARA, র গুনগতমান নিয়ে কোন আপোশ করবে না!

২) আপনি এখান থেকে পন্য কিনলে যদি কোন কারণে ছিঁড়ে যায় বা কিছু নষ্ট হয়ে যায় আপনি কুরিয়ার এর খরচ আর কিছু মজুরির খরচ দিয়ে পুনরায় রিপেয়ার করে নিতে পারবেন! মেটালগুলো সাথে দিবেন।

৩) ঈদের আগে যারা অন্তত একটা সেট অর্ডার করবেন তারা SARA র পক্ষ থেকে পাবেন একটা আকর্ষণীয় পুরুষ্কার।একটা করে কানের দুল।
৪) আপনি আপনার শাড়ি বা জামা ইনবক্স করেও মেচিং করে সেট করাতে পারবেন।
৫) সাথে পাবেন অজস্র ভালবাসা আর সাশ্রয়ী রেট!

তাই আর দেরি না করে এখনি অর্ডার করুন। আর SARA এর পাশে থাকুন!

নিচের পেজে লাইক করে পেজের সাথে যুক্ত থাকতে পারেন

SARA Fashion Accessories এর ফেসবুক পেজ 

 

আরও পড়ুন