বিনা টিকেটেই আয়া সোফিয়া পরিদর্শন করতে পারবে পর্যটকরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

শুক্রবার বিশাল মুসল্লি জমায়েত হয় আয়া সোফিয়ায়৷  টুপি মাথায় দিয়ে কোরান থেকে কয়েকটি আয়াত পাঠ করেন প্রেসিডেন্ট এর্দোয়ান৷ প্রায় ৯০ বছর পর নামাজ আদায় হলো গির্জা হিসেবে প্রতিষ্ঠা হওয়া ১৪৮৩ বছরের পুরনো এই স্থাপনায়৷

এরদোয়ানের মন্ত্রিসভার অনেক মন্ত্রী ছাড়াও বেশ কয়েকজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাও নামাজে উপস্থিত ছিলেন৷ ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী আলী এরবাস খুতবায় বলেন, ‘‘ইসলামের প্রতি বিদ্বেষ দিন দিন বেড়ে চলেছে৷ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে মসজিদে হামলা হচ্ছে, বলপূর্বক বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে, বোমা হামলা হচ্ছে, এমনকি ধ্বংস করে দেয়া হচ্ছে৷’’

করোনা সংক্রমণে নানা বিধিনিষেধ থাকলেও শুক্রবার আয়া সোফিয়ায় মুসল্লিদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে৷ তবে কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে দূরত্ব বজায় রাখার জন্য সবাইকে অনুরোধ করা হয়৷ অনেকেই ইতিহাসের অংশ হতে এদিন ভিড় জমান আয়া সোফিয়ায়৷

সরকারপন্থিদের পক্ষ থেকে আয়া সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরের বিরোধীতাকারীদের নামাজ পড়তে না আসা নিয়ে নানা ধরনের মন্তব্য করা হচ্ছে৷ তবে রিপাবলিকান পিপলস পার্টির সদস্য এবং ইস্তাম্বুলের মেয়র একরেম ইমামোগলু জানিয়েছেন, তাকে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের আমন্ত্রণই জানানো হয়নি৷

দুই সপ্তাহ আগেও আয়া সোফিয়া ছিল জাদুঘর৷ তবে আদালতের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এরদোয়ান এই স্থাপনাটিকে আবার মসজিদ হিসেবে ঘোষণা দেন৷

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আয়া সোফিয়া আগের মতোই সব ধর্মের মানুষের জন্য উন্মুক্ত থাকবে৷ তবে ভেতরে খ্রিস্ট ধর্মের নানা প্রতীক নামাজের সময় ঢেকে দেয়া হবে৷ আগে আয়া সোফিয়ায় প্রবেশমূল্য দিয়ে টিকেট কেটে ঢুকতে হতো৷ এখন বিনামূল্যেই পর্যটকেরা আয়া সোফিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন৷

সূত্রঃ ডয়েচে ভেলে, জার্মানি

আরও পড়ুন