ছোটবেলা থেকে বাচ্চাকে যেভাবে চুরি শেখাচ্ছে বাবা-মা!

মিলি সুলতানা

ওয়ালমার্টে বাজার করতে গিয়েছিলাম। সাবান, শ্যাম্পু, কন্ডিশনার, লোশন, ক্রীম, ফাউন্ডেশন কনসিলার, হাইলাইটস মাসকারা, চোখের কাজ, নেইল পলিশ, লিপস্টিক ও এয়ার ফ্রেশনার থেকে শুরু করে কিচেনের সামগ্রীগুলো ওয়ালমার্ট থেকে কিনতে স্বাচ্ছদ্যবোধ করি। আমার ছেলে গাড়ি ড্রাইভ করে নিয়ে গেলো। আমার বাসা থেকে কাছের ওয়ালমার্টে না গিয়ে বেছে নিলো লং ডিসটেন্সেরটা। যেটা ওয়েস্টবেরীতে অবস্থিত। স্মুদলি ড্রাইভিংয়ে পাক্কা চল্লিশ মিনিট লাগে। ব্লু টুথে বাজালো হাবিব ওয়াহিদের কায়া। আসি বলে গেলো বন্ধু আইলোনা গো……আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম…… বসন্ত বাতাসে সই গো…….কৃষ্ণ আইলো রাধা কুঞ্জে…… আমার মন মজাইয়া রে……আমার লাভের মাঝে এই লাভ হইলো গলাতে কলংকের ফুল! শুনতে শুনতে বুক ভারি হয়ে গেলো আমার। ছেলের পাশে বসা ছিলাম। রাস্তার সম্মুখভাগে তাকিয়েছিলাম। লুকাতে চেয়েছি চোখের পানি। খুব সাবধানে চশমার ভিতরে আঙুল ঢুকিয়ে চোখ মুছলাম। আড়চোখে দেখলাম আমার ছেলেটা চশমা ঠেলে ধরে কপালে বসিয়ে দিলো। স্টিয়ারিং থেকে হাত সরিয়ে চোখ মুছছে সেও!! কায়ার গানগুলো ওর নানুমনি খুব পছন্দ করতো।

পেমেন্ট শেষ করে রিসিপ্ট হাতে নিয়ে শপিংকার্ট টেনে সিকিউরিটির দিকে এগুচ্ছিলাম। রিসিপ্ট চেক করে কলম দিয়ে একটা আঁচড় লাগিয়ে দেয় সিকিউরিটি গার্ড। এমন সময় দেখলাম বিশ পঁচিশ জনের জটলা। নারী পুরুষ কণ্ঠের সম্মিলিত চেঁচামেচি। স্প্যানিশ এক ফ্যামিলি চুরি করে ধরা পড়েছে সিকিউরিটির হাতে। ট্রলি ভর্তি জিনিসপত্রের তুলনায় তাদের রিসিপ্ট এতই ক্ষুদ্র যে ট্রলিতে চোখ পড়া মাত্র সন্দেহ হবে। পুরুষটিকে দেখলাম চুরি করেও নত হল না। সিকিউরিটির সাথে উল্টো বাজে ব্যবহার। তার মুখের বাক্যে “F- Word” ছাড়া আর কিছুই শুনলাম না। মহিলার কোলে বাচ্চা।দেখে মায়া হল। কিন্তু সেও তার স্বামীর পক্ষ নিয়েছে। গার্ড বলল, “আচ্ছা তোমরা যে বলছ চুরি করোনি। এসব জিনিস একটাও রেজিস্টারে স্ক্যানড হয়নি, রিসিপ্ট নেই। তার মানে কি দাঁড়ালো? তোমরা চুরি করেছ। তোমরা এত ছোট বাচ্চাকে চুরি শেখাচ্ছো? Shame on you Guys………!” এই কথা শুনে আমার বুক লাফিয়ে উঠলো। বাচ্চাকে চুরির কাজে ব্যবহার করা হয়েছে। দেখলাম ৭/৮ বছর বয়সী একটা ছেলে ট্রলি টানাটানি করছে। ট্রলি নিয়ে খেলতে চাচ্ছে। মাকে বলছে ছোট্ট বোনটাকে ট্রলিতে বসিয়ে দিতে। সে খেলবে বোনকে নিয়ে। আমার ভেতরটা প্রকম্পিত হয়ে উঠলো। যে বয়সে বাচ্চারা খেলাখুলার মাধ্যমে শিক্ষা গ্রহণ করে, সেই বয়সে তাকে জঘন্য কাজে (চুরির কাজে) নামিয়ে দেয়া হল। বাচ্চাটা তাহলে কি শিখলো?

লেখকঃ সাহিত্যিক ও প্রবাসী বাংলাদেশী, ইউ এস এ

 

 

আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.