বাবা-মা’ই সন্তানের সেরা বিদ্যাপীঠ

হাসান মাহমুদ

একজন সন্তানের জন্য পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নামীদামী বিদ্যাপীঠ ও শিক্ষালয় তার বাবা মা।
তাই সন্তানের জন্মের পূর্ব তাকে সঠিক শিক্ষা, জন্মের পর মহান আল্লাহর সাথে পরিচয় করে দেওয়া।তাদের সর্বপ্রথম অল্প হলেও ইসলামী ধর্মীয় শিক্ষাদান দেওয়া।সন্তান কে মসজিদের সাথে নিবিড় যোগাযোগ তৈরী করা। এবং নামাজ শিক্ষা দেওয়া কোনআন শিক্ষা দেওয়া।
#দুঃখজনক হলেও আমাদের সমাজের সন্তানরা বেশিরভাগ ঈদের নামাজ পড়তে জানে না এমন কি জানাযার নামাজ পড়তে জানে না খুবই কঠিন সত্য দুঃখজনক। আপনি সন্তান কে জজ সাহেব ব্যারিস্টার উকিল অফিসার প্রফেসর ডক্টর, ইঞ্জিনিয়ার, বিজ্ঞানী পাইলট সব বানান ইসলামে কোন বাধা নেই। কারন দেশ সমাজ জাতীর প্রোয়োজন আছে। আমি বলছি আপনার মৃত্যুর পর আপনার শেষ জানাযার নামাজ পড়তে জানে না তাহলে আপনার সকল দেওয়া শিক্ষা অর্থহীন। আমাদের সমাজের বাস্তবতা হল ৯৫%মানুষ জানাযার জানে না এই জন্য  তাদের পিতামাতার জন্য কঠিন শাস্তি কেয়ামতের মাঠে অপেক্ষা করছে। একজন সন্তান কঠিন বিচারের মুখোমুখি হবে তখন সন্তান আল্লাহর কে বলবে হে আমার রব আমার জন্মের পূর্বে হতে জমিনে আসার পর আমার সাবালক হওয়া পর্যন্ত আমাকে আমার বাবা মা আমাকে তোমার সাথে  বন্ধুত্ব সম্পর্ক প্রতিস্থাপন করে দেয়নি। আমাকে নামাজ রোজা জানাযার নামাজ শিক্ষা দেইনি, আমাকে তোমাদের ইবাদতের সাথে পরিচয় করে দেইনি আমি এর জন্য দায়ী নয়। আপনি আমার পিতামাতা হাজির করুন। আমি আমার পিতামাতার বিচার চাই আল্লাহর  তা সুযোগ দিবেন। তাহলে সন্তান লালনপালন করার দায়দায়িত্ব কার আপনার না মানুষের?
সন্তান কে সুশিক্ষা দেয় না আজ পিতামাতার কাছে  অবাধ্য, সঠিক সময়ে সঠিক শিক্ষা দেয়না বলে আমাদের সমাজে পিতামাতা কে ভরনপোষণ দেয় না এর জন্য দায়ী কেবল পিতামাতা। এখন আপনি কি করবেন সিন্ধান্ত আপনার। আপনি সন্তানের কাছে কি চান সেটাও আপনার উপর নির্ভরশীল আমি বার বার এই কথা গুলো লিখি আমার বিবেক বলে আমার আরও বেশি করে লেখা দরকার তাই লেখি, আজ অনেক বাবা মা বৃদ্ধাশ্রমে থাকেন এর জন্য  সন্তানের চেয়ে বাবা মা ই ৯৬%দায়ী।

আরও পড়ুন