শিশুদের বয়স অনুযায়ী কাজের দায়িত্ব দিবেন যেভাবে

মুনমুন জাহান 
অনেকক্ষেত্রে আমরা বাবা মায়েরা সন্তানের প্রতি ভালোবাসার দরুন, তাদের দিয়ে কোনো কাজ করাতে চাইনা,মনে মনে ভাবি বড় হলে তখন করবে। ভাবুন তো,কোনো কাজ না পারা ছেলে/মেয়েটি দেশে/বিদেশে বা হল লাইফে কিভাবে কি করবে ?

অথবা,আপনার স্বামী/স্ত্রীই যখন একেবারেই প্রচন্ড আদরে বড় হওয়া,কোনো কাজ না পারা মানুষ হোন, আপনার কেমন লেগেছে /লাগবে ?

সন্তানকে নিয়ে একসাথে কাজ করলে বরং বাবা মার সাথে সন্তানের বন্ধুত্ব বাড়ে।সম্পর্ক হয় গভীর। আমরা বয়স অনুযায়ী আমাদের সন্তানদের ঘরের কাজ ভাগ করে দিতে পারি।

২-৩ বছর :
এ বয়সে শিশুরা সব কাজ করতে চায়, ঘর ঝাড়া থেকে রুটি বানানো সব। বাধা দেবেন না। করতে দিন,যদি সন্তানের ক্ষতির সম্ভাবনা না থাকে। এতে তার কাজে আগ্রহ বাড়বে, বিরক্ত হওয়া যাবে না।

🌾 মূলত এ বয়সে,শিশুদের কিছু নিয়ে আসতে বলুন,বা,নির্দিষ্ট কিছু রেখে আসতে বলতে পারেন। যেমন,শিশুর নিজের ডায়পার নিয়ে আসা,ও ফেলে আসা।
🌾 খেলনা গুছাতে বলা।
🌾 ময়লা কাপড় বালতিতে ধুতে দেয়া।
🌾 কম ধূলাযুক্ত স্থান মুছতে দেয়া।

৪-৫ বছর :

🌾 নিজের খেলনা একাই গুছানো
🌾 নিজের রুম গোছানো
🌾 হালকা স্ন্যাকস জাতীয় খাবার বানানো, যেমন স্যান্ডউইচ বানানো
🌾 রান্না ঘর গুছাতে সাহায্য করা,যেমন হাড়ি,পাতিল, প্লেট জায়গা মত রাখা
🌾 গাছে পানি দেয়া

৬-৭ বছর :

🌾 ময়লা ফেলা
🌾 চারকোণা কাপড় (টাওয়েল,রুমাল) ভাজ করা
🌾 রান্নার কাজে সাহায্য করা – সবজি(মটরশুঁটি, আলু,পটল,গাজর) ছেলা
🌾 সন্তানকেও খাবার বানাতে দেয়া – সালাদ, কাস্টারড বানানো
🌾 নিজের রুম নিজে ঝাড়ু দেয়া ও মোছা
🌾 বাথরুমে টয়লেট পেপার রাখা

৮-৯ বছর :

🌾 বাল্ব /লাইট লাগানো বা বদলানো
🌾 কাপড় ধোয়া,ভাজ করা ও গুছিয়ে রাখা
🌾 বাজার করতে সাথে নিয়ে যাওয়া ও বাজার গুছিয়ে রাখা
🌾 খাবার টেবিল নিজে নিজে গুছানো
🌾 নিজের প্লেট,গ্লাস নিজে ধোয়া
🌾 রান্না ও বেক করা,যেমন,ডিমের জরদা বানানো, কেক/বিস্কুট বানানো

১০-১১বছর :

🌾 নিজের বাথরুম ধোয়া
🌾 সিম্পল খাবার রান্না করা
🌾 রান্নাঘর নিজে গুছানো, হাড়ি,পাতিল ধোয়া
🌾 বাজার করা টুকটাক

১২বছর ও তার উপরে :

🌾 কাপড় আয়রন করা
🌾 ছোট ভাইবোন কে দেখে রাখা
🌾 সবধরনের রান্না করতে দেয়া
🌾 পুরো বাসা ঝাড়ু দেয়া,মোছা
🌾 বাজারের লিস্ট করা ও নিজে বাজার করা

কাজের ক্ষেত্রে ছেলে মেয়ে ভাগ করা উচিৎ না।শিশুরা কাজ ভাগ করে না,আমরা ওদের এই ভুল ধারণা দেই,এটা মেয়ের কাজ আর এটা ছেলের….

আরও পড়ুন
1 টি মন্তব্য
  1. juena বলেছেন

    খুব ভালোলাগল

উত্তর দিন juena
উত্তর বাতিল করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.