নিভৃত গাঁয়ের কবিঃ আপনাকে স্যালুট

সঞ্জয় সরকার

হাবিবা আক্তার সাজেদা। চল্লিশ ছুঁই ছুঁই এক সাধারণ গ্রামীণ নারী। বাবার বাড়ি নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার হারুলিয়া গ্রামে। পড়াশোনা চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত। এরপর বিয়ে। স্বামী মানিক মিয়ার বাড়ি পার্শ্ববর্তী কলমাকান্দা উপজেলার ধীতপুর শুনই গ্রামে। তিনি ছোটখাটো ব্যবসা করেন। আর সাজেদা সংসার সামলান। পাশাপাশি কিছু সেলাইয়ের কাজও করেন। মুর্শিদা জাহান মানিয়া নামে ছয় বছরের এক কন্যা সন্তান আছে তাদের।

সাজেদার সবচেয়ে বড় পরিচয়- তিনি একজন কবি। আবার শুধু কবি বললেও ভুল হবে। কবিতার পাশাপাশি উপন্যাস, গান, গজল প্রভৃতিও লেখেন। জীবনে একটা উপন্যাস না পড়েও তিন ফর্মার উপন্যাস লিখেছেন। নাম ‘প্রেমের নাম স্বর্গ’। প্রথম দু-তিন পাতা পড়েই বুঝেছি রগরগে প্রেম কাহিনী নয়। একটা গল্প আছে এতে। সাজেদার কবিতার বইয়ের নাম ‘যে আলোয় তোমায় দেখি’। কবিতাগুলো ‘গীতিধর্মী’। অন্ত্যমিল দিয়ে লেখা। ছন্দ-মাত্রায় কিছু ত্রুটি যে নেই- তা নয়। কিন্তু অবাক হয়েছি তার বিষয়বস্তু দেখে। নিজের দুঃখ-কষ্ট, দেশ ভাবনা, মুক্তিযুদ্ধ, ভাষা আন্দোলন, ১৫ আগস্ট, দুর্নীতি, নিম্নবিত্ত জীবনের টানাপোড়েন, সততা, সহমর্মিতা, অসাম্প্রদায়িকতা- সব আছে। স্বশিক্ষিত এই নারী নিভৃত গ্রামের হেঁসেলে বসেও চলমান বিশ্বের খবরাখবর রাখেন। শিক্ষিত ক’জন এমন করে ভাবেন দেশ-সমাজকে নিয়ে? সাজেদা দুই শতাধিক গান লিখেছেন। এবার গানের বই বের করবেন।

এক মামাত বোনের পরামর্শে আজ আমার অফিসে এসেছিলেন সাজেদা। তার দু’টো বই দিলেন। গত (২০১৯) বইমেলায় ‘বিভাস প্রকাশনী’ থেকে বেড়িয়েছে হার্ড কভারের বইগুলো। শ্রদ্ধাভাজন শিক্ষক ননীগোপাল (সরকার) স্যার বইগুলোর ভূমিকা লিখেছেন। প্রুফ দেখাসহ আনুষাঙ্গিক সহযোগিতা করেছেন। এ কারণে বইগুলোতে খুব একটা ভুল-ভ্রান্তি নেই। কবি হাবিবা আক্তার সাজেদা আমার কাছে এসেছেন লেখালেখি প্রসঙ্গে পরামর্শ নেয়ার জন্য। কিন্তু তাঁকে পরামর্শ দেয়ার মতো এমন কী যোগ্যতা আছে আমার! চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করে, নাগরিক সুবিধাবঞ্চিত গহিন গ্রামে বাস করে, নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের অভাব-অনটন, স্বামী-সংসার-সন্তান সামলিয়ে তিনি কবিতা লিখছেন, উপন্যাস লিখছেন, গান লিখছেন, দেশ-সমাজ নিয়ে ভাবছেন। তিনি আমার চেয়ে কম কীসে! এটুকু লেখাপড়ায় আমি বড়জোর একজন রাখাল বা মজুর হতাম। লেখক হতাম না এটা নিশ্চিত। তবু সাজেদাকে কিছু পরামর্শ দিয়েছি। বিভিন্নজনের বই বেশি করে পড়তে বলেছি। আবারও আসতে বলেছি।

হাবিবা আক্তার সাজেদার একটা কবিতা :

ধর্ম
————
ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি
কেন কর ভাই
স্রষ্টার সৃষ্টি সকল জাতি
বিশ্বাস কর তাই।

এক সুতাতে বাঁধা আছে
এ বিশ্ব জাহান
বিচার করে দেখ সবাই
এক মায়ের সন্তান।

হিন্দু মুসলিম গারো খ্রিস্টান
যত জাতি আছে
স্নেহবিহীন নেই গো কেহ
সৃষ্টিকর্তার কাছে।

নিজ ধর্মকে বড় বলে
করিও না ভুল
মানবতার রাস্তা খোঁজো
এটাই ধর্মের মূল।

 সঞ্জয় সরকারঃ সাহিত্যিক ও সাংবাদিক, নেত্রকোনা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯।

আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.