কষ্টের সাথেই স্বস্তি

সুমাইয়া ইমাম তৃণা

আমার এক ইয়েমেনী বান্ধবী রোজ রাতে আমাকে বাসায় ড্রপ করে, ওর নাম সানা —সানা’র গাড়ির সাউন্ড সিস্টেমেই খুব সম্ভবত আমি জীবনে প্রথম “fa inna ma’al ‘usri yusraa, Inna ma’al ‘usri yusraa” এই লাইন দুটো শুনেছিলাম, এই আয়াত দুটো শুনছিলাম—

 

এবং, জনসম্মুখে কাঁদিনা, বড় হয়ে গেছি নীতির দফা রফা করে খুব খুব খুব একচোট কেঁদেছিলাম, সহজ স্বাভাবিক কান্না না- হাউ মাউ করে ঠিক যতটা কাঁদলে পাশে বসা মানুষটা বিব্রতের চুড়ান্ত হয়, সেই কান্না।

 

-কেউ একজন যত্ন করে অনুবাদ করে করে দিচ্ছিলেন ইংরেজীতে “For indeed with hardship there is ease, Indeed with hardship there is ease” …নিশ্চয়ই কষ্টের সাথেই স্বস্তি রয়েছে…

 

সানা ড্রাইভ করার সময় কুরআন তিলাওয়াত শুনতে ভালোবাসে, ওর পাশে বসে আমিও শুনতে শুনতে আসি, আমাদের রাতের রুটিন মত হয়ে গেছে ব্যাপারটা। আমরা গাড়িতে উঠবো, ও তিলাওয়াত চালু করবে, ১ ঘন্টা ১৫ মিনিটের ড্রাইভে মাঝামাঝি সময়ে ঐ আয়াত দুইটা আসবে, এবং আমি কান্না শুরু করবো— মাঝে মাঝে নিঃশব্দে কেঁদে ওর জন্য একটু সহজ করার চেষ্টা করবো সব,

আর মাঝে মাঝে কাজ করবে না কোনও চেষ্টাই…

 

আমি এই কান্নাটা নিয়ে অনেক ভাবছি এবং

এর ব্যাখ্যা বের করার চেষ্টা করছি —

 

একটা ব্যাখ্যা এমন যে,

আমি খুব ক্লান্ত থাকি ঐ সময়টায়- হাইওয়েটা ফাঁকা হয়ে যায় বলে হয়তো এক রকম নিঃসঙ্গতা মতো চলে আসে- সাদা বরফে ঢেকে থাকা একটা ঘুমন্ত শহর নিজের মত করে মনে করিয়ে দেয় কাছের মানুষগুলো কাছে নেই কেউ এখানে। এর মধ্যে ঐ আয়াত দুটো, যিনি তিলাওয়াত করছেন তার কন্ঠ, যিনি অনুবাদ করছেন তার অনুবাদ…

 

আর একটা ব্যাখ্যা এমন,

ঐ আয়াত দুটো হয়তো এমন কিছু ‘কষ্ট’ মনে করিয়ে দেয়

যেগুলোর অস্তিত্বই আমি স্বীকার করতে চাইনা,

সেই কষ্টের বিপরীতে আবার এমন ‘আশা’র গল্প শোনায়

যেই আশা করতেও খুব ভয়…

 

কিন্তু আমার মনে হয় কান্না আসে অন্য কারনে, আমার মনে হয় কান্না আসে কারন

বুকের অনেকটুকু গভীরে আমি জানি,

যিনি আশ্বস্ত করছেন তিনি কখনও মিথ্যা বলেন না,

এবং,

আমি জানি তাঁর পক্ষে অসম্ভব কিছুই নাই।

 

আগ্রহী পাঠকের জন্য, সবগুলো লাইন

 

أَلَمْ نَشْرَحْ لَكَ صَدْرَكَ

alam nashrah laka sadrak

Did We not expand for you, (O Muhammad), your chest

 

وَوَضَعْنَا عَنكَ وِزْرَكَ

wa wadda’na anka wizrak

And We removed from you your burden

 

 

الَّذِي أَنقَضَ ظَهْرَكَ

aladhee anqadda dhahrak

Which had weighed upon your back

 

وَرَفَعْنَا لَكَ ذِكْرَكَ

wa rafa’na laka dhikrak

And raised high for you your repute

 

فَإِنَّ مَعَ الْعُسْرِ يُسْرًا

fa inna ma’al ‘usri yusraa

For indeed, with hardship will be ease

 

 

إِنَّ مَعَ الْعُسْرِ يُسْرًا

Inna ma’al ‘usri yusraa

Indeed with hardship will be ease

 

َإِذَا فَرَغْتَ فَانصَبْ

fa idhaa faraghta fansab

So when you have finished your duties, stand up for worship

 

وَإِلَىٰ رَبِّكَ فَارْغَب

wa ilaa rabaka faRghab

And to your Lord direct your longing

 

(Al Quran: 94)

 

আমি কি আপনার বক্ষ প্রশস্ত করিনি?

 

এবং আমি হালকা করেছি আপনার ভার

 

যা ছিল আপনার জন্য খুবই কষ্টকর

 

আর আমি আপনার স্মরণকে উচ্চ মর্যাদা দান করেছি

 

সুতরাং, কষ্টের সাথেই তো স্বস্তি রয়েছে।

 

নিশ্চয়ই কষ্টের সাথেই স্বস্তি রয়েছে।

 

অতএব আপনি যখনই অবসর পান, ইবাদতে রত হউন।

 

এবং আপনার প্রতিপালকের প্রতি মনোনিবেশ করুন।

আরও পড়ুন