Ads

বাংলা ব্লকেডে পথচারীদের শতভাগ সমর্থন 

।। বিশেষ সংবাদদাতা ।।

কোটা বিরোধী আন্দোলনের নতুন পদক্ষেপ হিসেবে গত দুদিন পালিত হয় রাজধানী ঢাকাসহ দেশের আরও বিভিন্ন স্থানে “বাংলা ব্লকেড”। বাংলা ব্লকেডের অংশ হিসেবে যোগ হয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্ররা অংশ নেয়। এদিকে রাজধানী শহর ঢাকার বিভিন্ন স্থানে শান্তিপূর্ণ “বাংলা ব্লকেড” পালন করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। যাত্রীদের সাময়িক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হলেও হাসি মুখেই অধিকাংশরা মেনে নেন সাময়িক এই বিড়ম্বনা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এরিয়ার চারদিকে হলভিত্তিক দায়িত্ব বন্টন করে কোটা বিরোধী আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

চাংখারপুল, আনন্দবাজার এলাকায় অমর একুশে হল, শহীদুল্লাহ্ হলের শিক্ষার্থীরা দুপুর ৩ টা থেকে অবস্থান করলে ৪ টার দিকে বাংলা ব্লকেড কর্মসূচীতে এসে যোগ দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এছাড়া হাইকোর্ট মোড় ও মৎসভবন এলাকায় অবস্থান ফজলুল হক মুসলিম হল এবং সুফিয়া কামাল হলের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। আর অন্যান্য হলের শিক্ষার্থীরা শাহবাগ ও ফার্মগেট এলাকায় অবস্থান করে মূল কর্মসূচী পালন করে সারাদিন। গত সোমবার বাংলা ব্লকেড কর্মসূচী শুরু হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার থেকে।

আরও পড়ুন-

মুক্তিযোদ্ধার নাতী- নাতনীরা জানে না নানা-দাদা কোথায় যুদ্ধ করেছিল!

ঢাকা কলেজ সংলগ্ন সাইন্সল্যাব এরিয়ায় ব্লকেড কর্মসূচীতে যোগ দেয় ঢাকা কলেজ ও ইডেন কলেজের শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আরিচায় এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা গুলিস্তান এলাকায় শান্তিপূর্ণ ব্লকেড কর্মসূচী দুপুর ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৭.৩০ পর্যন্ত অব্যাহত রাখে। এ সময়ে মিডিয়া কর্মীরা উপস্থিত হলে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী বিভিন্ন স্লোগান তুলে তাদের দাবির জানা দিতে থাকে।

“কোটা না মেধা?

মেধা, মেধা”

 

“সারা দেশে খবর দে

কোটা প্রথার কবর দে”

আরও পড়ুন-

কোটা সংকটের যৌক্তিক সমাধান অপরিহার্য

“আঠারোর হাতিয়ার

গর্জে উঠো আরেকবার”

 

“মুক্ত স্বাধীন বাংলায়

বৈষম্যের ঠাঁই নাই”

 

 

“এক দফা এক দাবি

চাকুরি পাবে মেধাবী”

এমন সকল স্লোগানে শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি জানাতে থাকে। পথচারীদের ভাষ্যমতে, এ আন্দোলন যৌক্তিক। আজকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে আগামীতে আমাদের সন্তানরা তার সুফল ভোগ করবে।

আরও পড়ুন-

কোটা প্রথা যেভাবে জাতিকে অন্ধকারে ঠেলে দিচ্ছে  

রাজধানী ছাড়াও ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কে ব্লকেড কর্মসূচী পালন করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২২ কিলোমিটার দূরে চট্টগ্রাম শহরে সকাল থেকেই অবস্থান নিতে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা, বেলা গড়ালে ব্লকেড কর্মসূচী আরও তীব্র হয়ে উঠে, পুরো শহরে নিজদের এক দফা এক দাবির জানান দেয় শিক্ষার্থীরা। শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী শেষে আবার রাতের শাটলে করে ক্যাম্পাসে ফেরে শিক্ষার্থীরা। এদিকে রাজধানী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রেলওয়ে স্টেশন কর্মসূচী পালন করে। আর সারাদেশ বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ ব্লকেড কর্মসূচীতে একাত্মতা পোষণ করে।

গতকাল মঙ্গলবার ব্লকেড আওতামুক্ত কর্মসূচী ঘোষণা করেছে কোটা বিরোধী আন্দোলন সমন্বয়ক কমিটি। প্রধান সমন্বয়কদের একজন জানান, আন্দোলনকে আরও বেগবান করতে, পরিপূর্ণ প্রস্তুতি এবং দেশের সকল স্তরের মানুষদের জানান দিয়ে আগামীকাল বুধবার থেকে আবার ব্লকেড কর্মসূচী শুরু হবে সারা দেশ ব্যাপী। তবে বেলা কয়টা থেকে শুরু হবে সে ব্যাপারে এখনোও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

…………………………………………………………………………………………………………………………

মহীয়সীর প্রিয় পাঠক ! সামাজিক পারিবারিক নানা বিষয়ে লেখা আর্টিকেল ,আত্মউন্নয়নমূলক অসাধারণ লেখা, গল্প  ও কবিতা  পড়তে মহীয়সীর ফেসবুক পেজ মহীয়সী / Mohioshi  তে লাইক দিয়ে মহীয়সীর সাথে সংযুক্ত থাকুন। আর হা মহীয়সীর সম্মানিত প্রিয় লেখক! আপনি আপনার পছন্দের লেখা পাঠাতে পারেন আমাদের ই-মেইলে-  [email protected]  ও  [email protected] ; মনে রাখবেন,”জ্ঞানীর কলমের কালি শহীদের রক্তের চেয়েও উত্তম ।” মহীয়সীর লেখক ও পাঠকদের মেলবন্ধনের জন্য রয়েছে  আমাদের ফেসবুক গ্রুপ মহীয়সী লেখক ও পাঠক ফোরাম ; আজই আপনিও যুক্ত হয়ে যান এই গ্রুপে ।  আসুন  ইসলামী মূূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রজন্ম গঠনের মাধ্যমে সুস্থ,সুন্দর পরিবার ও সমাজ গঠনে ভূমিকা রাখি । আল্লাহ বলেছেন, “তোমরা সৎ কাজে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে এগিয়ে চলো ।” (সূরা বাকারা-১৪৮) । আসুন আমরা বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চার মাধ্যমে সমাজে অবদান রাখতে সচেষ্ট হই । আল্লাহ আমাদের সমস্ত নেক আমল কবুল করুন, আমিন ।

আরও পড়ুন