ব্রাউজিং ট্যাগ

কবিতা

আলোকোজ্জ্বল মুখ

(আমার আব্বা শাহ্ আজিজ স্যারের স্মরণে) এস এম মুকুল কালের গর্ভে সৌরভিত আপনার আলোকোজ্জ্বল মুখ চেনা হাসি; পরম ভালবাসায় কাছে টানার যাদু আর সদাহাস্য রসালাপ- মন্ত্রের মতো আজো কাছে টানে। কোথায় হারালেন- কোনখানে! চেতনার মাঝে, বোধের…

করোনা

মারুফা সুলতানা করোনা নামের নতুন এক রোগ আসলো এই ধরাতে, মরছে মানুষ হাজার হাজার আজব এই জরাতে । আটকা মানুষ ঘরে ঘরে যাচ্ছে না কেউ বাইরে । এমন জটিল পরিস্থিতি কি যে করি ভাইরে? দোয়া দরূদ পড়ছি সবাই মাফ করে দাও প্রভু,…

বাবুই পাখি

মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বাবুই পাখি তিলে তিলে বুনে তার বাসা! ঘরটি নয় তার শক্ত ভিতের স্রেফ বায়ুমণ্ডলে ভাসা। বাবুই পাখি নিপুণ ঠোঁটে গড়ে তার বাসা! ঘরটি নয় তার ইট-কংক্রিটের স্রেফ খড়কুটোতে ঠাসা। তীক্ষ্ণ ঠোঁটের যাদুর ছোঁয়ায় নিখুঁত তার…

মে দিবসের ডাক

আবু সাইফা আঠারোশো ছিয়াশি থেকে একবিংশ শতাব্দীর আজকের এ দিন শুধু নয় সভ্যতার শুরু থেকে অনাগত অনন্তকাল স্যাবোটাজ চলমান। পিরামিড থেকে আইফেল টাওয়ার হয়ে তাজমহল মহাপ্রাচীরের প্রতিটি পাথরের গায়ে ভালো করে শুঁকে দেখো শ্রমিকের রক্তের গন্ধ পাও…

কবি! তোমার কবিতায় বাজে বিবর্তনের সুর!

হাছিনা মমতাজ ডলিঃ কবিতার কিছু দুর্বোধ্য সোপান আছে সেই পথটুকু কন্টকময়,বন্ধুর! যে পৌঁছে যেতে পারে জীবনের অবাধ্য সময়ের দহিত ভাঙন শেষে----- কবিতার পর্বতচূড়ায়! জয়ীতার মতো অরুন্ধতী কাব্যের মোড়কে সাজায় সে, জীবনের পদাবলী! কবি তুমি কি সেই…

পাথুরে সভ্যতার লংমার্চ

আবদুর রহিম রবিন চাহিদার সাথে পাল্লা দিয়ে অসঙ্গত অসময়ের পরিক্রমায় কৃত্রিমতার গতিশীল উত্থান- পণ্যের বাজারে শিক্ষীত জনগোষ্ঠির বহুমাত্রিক বিপননে, যান্ত্রিক সভ্যতার আধুনিক উৎকর্ষতায় শহরময় মৃত্তিকা আচ্ছাদিত কঠিন পাষানে। ইমারৎ,…

নিজকে মারি খোঁচা

আব্দুস শাকুর তুহিন বন্ধ হলো শিক্ষায়তন বন্ধ হলো আকাশ পথ, অনুষ্ঠান আর খেলাধুলা জনসমাগমের রথ। বন্ধ হলো আমদানী আর বন্ধ হলো রফতানী, বন্ধ হলো ড্রামস পিয়ানো কিংবা শখের দফখানি। বন্ধ হলো করমর্দণ কোলাকুলি কত্ত কী! তবুও মন মনন তুমি…

মায়ের কাছে চিঠি

সৈয়দ আমির আলী মাসটা এলেই ক্যালেন্ডারে খুঁজে ফিরি তিরিশ মা বলেছেন, ’খোকা ওরে জলদি করে ফিরিস।’ পড়তে এসে এই শহরে ভাল্লাগেনা পড়া স্নেহের ছোঁয়া নেই যে মাগো শাসন বড়োই কড়া। শহরটা মা অনাত্মীয় সবাই কেমন পর কেউ বলে না ‘চলরে তপু,…

বসন্ত কুহক

বসন্ত কুহক । এইত সেদিন, সেদিনের এক বসন্ত দুপুরে, ডেকেছিলে আমায় তুমি সংগোপনে হৃদয় মাঝে,। পুলকে শিহরে কম্পিত প্রাণে জাগে শুধু ঢেউ, নিথরে থাকি যদি জানিলো বা কেউ। পুলকে পরান কাপন জাগায় দখিনা বায় এসে, ডেকে যাও তুমি বাঁশির সুরে কোন্ বনে…

তাহাদের পায়ের আওয়াজে

মুজতাহিদ ফারুকী পারস্যের বিশালেরা যেন সূর্য, আকাশের সদা দীপ্ত ফুল গ্রাস করে নিয়েছেন প্রাচীন আঁধার সেই রোদে খোলা গায়ে বসি নিত্যদিন লাগাই নতুন করে দরকারি শুদ্ধ ভিটামিন। হেরোডোটাসের গান থামিয়ে ধ্যানের গ্রামোফোনে চাপিয়েছি আত্তারের পাখির…