সন্তান লালন পালনে যে ভুলগুলো করবেন না(পর্ব ৪)

-জিনাত জিনু

আপনার সন্তান টিভিতে বা মোবাইলে কি দেখছে  সে-সম্পর্কে আপনি অবগত আছেন?

আজকাল প্রযুক্তির অগ্রগতির কারনে ইন্টারনেট বা ডিশ লাইনের সংযোগ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও চলে গিয়েছে। কোয়ারান্টাইনের দিনগুলোতে আমরা শহরের মানুষ বেশির ভাগ সময় আমাদের বিনোদনের উৎস হিসেবে টিভি মোবাইলের উপর নির্ভরশীল।আমাদের সন্তানের গৃহবন্দী জীবনে চঞ্চলতা ও বেড়েছে অনেক।তাই নিজের কাজগুলো সহজ করতে ওর হাতে ধরিয়ে দিচ্ছি টিভি বা ফোন।কিন্তু ও ফোনে কি দেখছে  আপনি খেয়াল করছেন তো?
১.সে টিভিতে কার্টুন দেখছে। ওগি,টম এন্ড জেরি,মি বিন।আপনি একটু খেয়াল করুন এই কার্টুনগুলোতে কি আছে।ওগি ছুটছে ককরোচ এর পিছনে, টম জেরীর পেছনে, একে অন্যকে হারানোর দূর্দান্ত প্রতিযোগিতা। নিক্স দেখেন-সিভা,মটু পাতলু,পাওয়ার রেন্জার,ভয়ানক মারামারি করে আমি জিতলাম আমিই হিরো।
২. আমরা যখন টিভি দেখি,বেশির ভাগ মানুষ নাটক,সিনেমা,সিরিয়াল দেখি।আমার বাচ্চা কোথায়? আমার পাশে বসে সেও এসবই দেখছে। প্রেম বিরহ,হিংসা,হানাহানি, শত্রুতা।তার নরম কাদা মাটির মনে এটা কি ধরনের প্রভাব ফেলছে? তার দৃষ্টিভঙ্গী কোন দিকে যাচ্ছে?
৩.ইউটিউবঃ যেখানে সব ধরনের ভিডিও আছে। আপনি এলসা-এনা-স্পাইডার ম্যান,মেকাপ ভিডিও,মনস্টার ভিডিও, গ্রানী,ঘোস্ট, দেখেছেন। একটা বাচ্চার সুস্থ মস্তিষ্ক বিকৃত করার জন্য যথেষ্ট কনটেন্ট আছে এসব এ।আবার ভিডিও দেখতে গিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় চলে আসতে পারে আপনি সেসব ক্লোজ করে রেখেছেন তো?

শিশুদের হাতেখড়ি হয় মা বাবার কাছে। আপনার সচেতনতা আপনার শিশুকে সুন্দর জীবনের পথনির্দেশনা দিতে পারে।তা-ই শিশুর সাথে স্ক্রিন শেয়ার করার সময় সচেতন হোন।

জিনাত জিনু – সাহিত্যিক।

আরও পড়ুন