এক চিমটি সন্ধ্যার গল্প

পার্থনা শেষে
বইয়ের পাতা মুড়িয়ে
কত হিজিবিজি চিন্তা?
কখনো আপনমনে কল্পলোকে এধার ওধার ঘুড়ে বেড়ানো,
কখনো চায়ের কাপে একলা চুমুক।
এটা সেটা লিখবো করে
নিজেতে কথার বৃষ্টি বেড়েই চলে।
এই কাজ
সেই কাজ
রাত-
মধ্যরাত
তাহাজ্জুদ রাত
অলসতার কত আবদার!
আরেকটুপর করতে করতেই
তড়িঘড়ি করে উঠে ফজর ফুলের ঘ্রান নিতে হয়।
তিলাওয়াত শেষে হৃদয় নিমজ্জিত হয় প্রশান্তিতে।
শুরু হয় একটা পবিত্র দিন
আবারো এ কাজ
সে কাজ
বইয়ের পাতায় প্রেম
মুঠোফোনে একটু একটু অভিমান
কখনো তোদের সাথে ঝগড়া।
রন্ধনের কত আয়োজন?
জোহরের তাড়া শুরু হয়
দিনও দৌড়িয়ে গোধূলি ডাকতে থাকে
আছর এসে বিকেলের ঘুম ভাঙায়।
খোলা আকাশ দেখার তৃষ্ণায়
কখনো বেলকুনির খুপড়ির চড়ুই হতে হয়।
একরাশ মন খারাপ কখনো ভেঙে ফেলে
এক বৃক্ষসম খুশি কখনো সমূদ্রে ভাসায়।
মাগরিবের ফুলের ছোয়ায়
জায়নামাজে বসে
আকুতি চলে মোনাজাতে।

 

খাদিজা ইয়াসমিন – কবি 

আরও পড়ুন