ছবির ছড়া-০২

আব্দুস শাকুর তুহিন
~~~~~~~~~~~~

এই যে ধরো, খড়ের পালা
কিংবা খড়ের গাদা,
নামটা যা হোক, দুই পাশে দুই
স্বপ্ন শাবক বাঁধা।

আরেক পাশে তেঁতুল গাছের
শীতল গীতল ছায়া,
গাছ জুড়ে রয় স্বর্ণকেশী
স্বর্ণলতার মায়া।

কিংবা ধরো পুকুর পাড়ে
নোন্দা গোবর খড়ি,
খড়িতে কী গন্ধ টানা!
কে দেখেছে পড়ি?

আচ্ছা ধরো, দু’ধাপ ফেলে
পুকুর পাড়ে গিয়ে,
নেংটী মেরে উদোম গায়ে
নিজকে দি’ ভাসিয়ে।

টুপ করে এক ঝাঁপ দিয়ে যেই
দিলাম গভীর ডুব,
রক্তে শীতল প্রশান্তি ঢেউ
যায় বয়ে খুব খুব।

ডুব দিয়ে খুব যখন হলো
সময় সেকেন্ড আশি,
মাছের মতো নাক উঁচিয়ে
তখন গেলাম ভাসি।

ভেসে ভেসে এক নিমিষে
কান পাতি চোখ বুজে,
পানির নিচের শব্দে এ মন
কী জানি কী খুঁজে!

উল্টো সাঁতার কাটি কাটি
দেখি আকাশ পাখি,
ঐ পারের এক গাছে বুঝি
উঠলো ডাহুক ডাকি।

ক্লান্ত দেহে উঠনু গিয়ে
পিঠালুর ঐ গাছে,
গা এলিয়ে দেখছি তখন
আকাশটা খুব কাছে।

আচ্ছা ধরো, এই যে ধরো,
কিংবা ধরো, ধরো,
এতো ধরা ধরছি কেন
প্রশ্নটা তো করো!

লাগবে না থাক! আমিই বলি,
ধরা ছাড়া মনে,
এসব কেবল আকাশ কুসুম
যান্ত্রিক এ জীবনে!

১২.৪৭
২০.০৬.২০২০

ছবিঃ
২৯.১০.২০১৯
গোদাগাড়ী, রাজশাহী
ডিভাইসঃ Huawei

লেখকঃ কবি, গীতিকার, সুরকার ও শিল্পী। 

আরও পড়ুন