তোমার চলে যাওয়ার সময়

–আশরাফুর রহমান

তোমার শিয়রের কাছে দাঁড়িয়ে আছি আমরা
উৎকণ্ঠা আর বিষণ্ণতা নিয়ে।

তোমার শ্বাস-প্রশ্বাস ক্ষীণ হয়ে আসছে ক্রমাগত,
ধীর হয়ে আসছে হৃদস্পন্দন
যেকোনো মুহূর্তে  বেরিয়ে যাবে তোমার প্রাণবায়ু,
পড়ে থাকবে শুধু তোমার নিথর দেহ।
ফ্যালফ্যাল করে তাকাচ্ছো আমাদের দিকে
নিষ্পলক চোখে,
চোখ বেয়ে অশ্রু নামছে অবিরল
মুখে নেই ভাষা অথচ নিষ্ফল চেষ্টা করছো
শেষ কথাটি বলতে।অশ্রুসিক্ত নয়নে বিলাপ করছে শয্যাপাশে তোমার দীর্ঘদিনের সাথী তোমার প্রিয়তমা স্ত্রী,
তোমার পুত্র-কন্যা,
তোমার পুত্রবধূ।
তোমার একান্ত আত্মীয়-স্বজন।

আমরা দাঁড়িয়ে আছি অভাগা কজন
তোমাকে দেখছি নিবিড়,
মনেমনে পাঠ করছি পবিত্র কোরানের আয়াত,
তোমার চলে যাওয়ার সময় ফুরিয়ে আসছে আর বুঝি নেই দেরী,
কি করে তোমাকে রাখবো ধরে
সে শক্তি আছে কি কারও?
জীবনের সব কীর্তি ম্লান করে
তোমার জীবনের সূর্য ডুবে যাবে নিমিষেই
গহীন অন্ধকারে।
আমরা অশ্রুপাত করবো ক্ষণকাল
তারপর
ভুলে যাবো তোমাকে।
নিজেদের জীবন নিয়ে আবার মেতে উঠবো
আগের মতোই।
আস্তে আস্তে তোমার স্মৃতি
হয়ে যাবে  বিস্মৃত
আমাদের হৃদয়পট থেকে।
যতোই বলি মুখে ভুলবো না তোমায়
কিন্তু হায়!
স্মৃতির অতলে হারিয়ে ফেলবো তোমাকে।

আশরাফুর রহমান – কবি।

আরও পড়ুন