দুখবিলাসী

সুমী শারমীন

তোমাকে পাওয়ার আগে,
হারানোর ভয়,
গ্রাস করে আমাকে অহর্নিশ,,

কষ্টকে অভ্যেসে পরিণত করতেও
সাহস লাগে,লাগে কিছু সঞ্চয়।।

চোখের কষ্ট, মনের কষ্ট
অন্ধকারে সুখের কষ্ট,
কষ্ট পুষে,দিনকে রাত,আর
রাত্রির নিস্তব্ধতায় যে
অজানা কষ্ট লুকিয়ে কাঁদে
তার খবর কেউ কি রাখে!!

কেউ জানে না
মন উদাসী বাতাসের তোড়ে
লণ্ডভণ্ড করে দেওয়া,অযাচিত কষ্ট,
সেই কষ্টের লিখন বয়ে বেড়ানোর
অযুত লক্ষ নিযুত ক্ষতের কষ্ট।।

অজস্র হাসির মাঝে
রাতের চাদরে মুখ লুকিয়ে
কাঁদে যে রাত,
সেই রাতের কাছে বন্ধক রেখেছি
তোমাকে না পাওয়া বেদনার ঘাত।।

হৃদয়ের বাউল বাতাসে আর
খেলা করেনা অমরাবতীর দল,
রথের মেলায় রেশমী চুড়ির
খামখেয়ালী সুখের প্লাবন,
স্মৃতি হয়ে কাঁদায় আমায়
ফাগুন হাওয়ার উদাস কাঁপন।।

পোস্ট অফিসে আসেনা আর
আমার নামের সুখের চিঠি,
যে চিঠিতে ছিলো আমার
স্বপ্নে বোনা রোদের মিঠি।।

চরণ থামা চলার পথে
হারিয়েছি সেই মেলার রথে,
স্বপ্নবোনা রঙিন ঘুড়ি,
কাঁদায় আমায় অঝোর ধারায়।।

নয়তো শ্রাবণ, নয়তো আষাঢ়,
থমকে থাকা জীবন আমার
পৌষ ফাগুনী খেলায় মাতে
তানপুরাটার সুর প্রভাতে।।

তবু জীবন থমকে দাঁড়ায়
খুব নিশীথে কড়া নাড়ে
দুখবিলাসী সেই আমি আজ
সুখেই কাঁদি বারে বারে।।

সংগীত শিল্পী, লেখক
(সময়কাল-২৪,আট,বিশে বিশ)

আরও পড়ুন