দেয়াল

বিপাশা হাবিব আরজু

আজকাল হঠাৎই খুব মন খারাপ হয়।
অথচ বিশেষ কোন কারণ নেই
কষ্ট গুলোকে বিগলিত করার ক্ষমতা
প্রায়ই হারিয়ে ফেলি এখন।

শব্দহীন নীল স্রোত বেসামাল হয়ে ওঠে,
করাঘাতে ভেঙে ফেলতে চায়
প্রতিরোধ নামক দেয়াল।

জনস্রোতে তোমার হারিয়ে যাওয়া
নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে দেখি।

চোখের কোনায় জল জমে যায়
লবনের অভাবে ভারী হয়না বলে
গড়িয়ে পড়তে পারেনা।

আমি জানি, নিঃসঙ্গতার দেয়াল ঘেঁষে
তুমিও নিয়ে নিলে নিজ নির্বাসন।

আমার বেলা কুয়াশায় ঢেকে যায়,
রোদ্দুরের অপেক্ষা করি।

শিশুর সরলতা তোমায় দিলাম,
ঘুম পাড়ানি গানটা আমার থেকে যাক।

নিঃশব্দে নিঃসৃত নিঃস্বাসে জমা রাখি
আমার রোজকার দীর্ঘশ্বাস।

রোজ তারা জলকণার সাথে উড়ে চলে।

আমি খোলা মাঠে তাদের উড়াউড়ি দেখি
নিঃস্বঙ্গতার সুর ক্ষীণ কন্ঠে বলে যায়,
“দেখা হবে।”

লেখকঃ সাহিত্যিক ও অ্যাডমিন, মহীয়সী প্যানেল 

আরও পড়ুন