শোক গল্প

 

শোক তোমার শরীরের গায়ে এখনও আমার
চুম্বনক্ষত লেগে আছে রৌদ্রজ্যোৎস্নাময়
তবু রক্ত পড়েনি—-
দু’হাত মেলে আমি জোছনা ডাকছি
এই শোক-মহল্লায়।
দিবাবসানে সব কান্না-শোকের দল
আয়োজনহীন শূন্যতায় সময় সাজাচ্ছে
অশ্রু-কারুকাজে।
আমার অস্তিত্বের অলিগলির দ্বিধাদ্বন্ধে
হারিয়ে যাচ্ছে জীবন নামক সমুদ্রের স্বর
হারিয়ে যাচ্ছে নিরুত্তর ধানগুচ্ছে লুকিয়ে
থাকা পৌষের গন্ধ—এখন ফ্লাইওভারের নিচে
মাতালদের গায়ে মৃত আলোর গন্ধ
আহা বলার সমস্ত রাত জুড়ে এঁকে রাখছে
নির্বান্ধব দীর্ঘশ্বাস যত।

এখন শোকসমাজের নৈশ-দৈনিকে কেবল
দৃশ্যমান বিভঙ্গের জটিল হাওয়ার খবর।
দস্যুর পাশে থেকে থেকে শেষ হলো প্রেম
তীক্ষ্ণ শালবৃক্ষে জাতকের ত্রাস
তবু প্রত্ন-নৈঃশব্দ্যে জেগে থাকে সবুজ রঙে
একদিগন্ত আকাশী মন
সমুদ্র লঙ্ঘনে সিক্ত নক্ষত্রের ধ্যানে।

লেখক–হাসান ওয়াহিদ, কবি ও সাহিত্যিক।

আরও পড়ুন