শ্রাবণের রাণী

 

শ্রাবণ দুপুরে বৃষ্টির ঘ্রাণ গায়ে মেখে
তুমি এসেছিলে;
তোমার গায়ে গতরে সোঁদা মাটির ঘ্রাণে,
আমি দিশেহারা পাগলপ্রায়।
তুমি যেন এক পশলা বৃষ্টি হয়ে
তৃষিত হৃদয় ভিজিয়ে দিলে!
যাযাবর হৃদয় অস্ফুট ব্যকুলতায় ছিল
শুকনো চৌচির মরুময়।

তোমাকে দেখেই হৃদয় বীণায় বেজে ওঠে সুর,
রিনঝিন রিনঝিন বুকে বাজলো গভীর।
শ্রাবণের মমতা ভেজা কোমল পরশে,
ভালোবাসার ব্যথায় সুনিবিড়!

শ্রাবণের অঝোর ধারায় সিক্ত ভালোবাসা,
ফোটায় ফোটায় অনুভবে শিহরণ,
বরষার কালো মেঘ হয়ে অভিমানে প্রিয়তমা,
জলে ছলছল ডাগর দু’নয়ন।

আমি হবো শুকনো খরখরে মাটি,
কিংবা তৃষিত সবুজ অরণ্য;
তোমার প্রতীক্ষায় প্রহর গুনতে অধীর,
মমতা মাখা শ্রাবণ বর্ষনে ধন্য।
তোমার অঝোর স্পর্শে, ভালোবাসায়
জুড়াবে হৃদয় মন;
মুষলধারে বৃষ্টিতে কাঁপন ধরানো
প্রগাঢ় আলিঙ্গন।

 

মোস্তফা মাসুম তৌফিক – কবি  

আরও পড়ুন