অনুভব

অসিমা দাস দৃষ্টি

প্রতিদিন শুধু একই নিয়মে জীবন চালিয়ে নেওয়া

আর কিচ্ছু না।

আর কিছু না?

না! প্রতিদিন শুধু নিয়ম করে-

সকালে ঘুম থেকে উঠা,ব্যক্তিগত কিছু কাজ,

তারপর পড়ে থাকো কর্মজীবন নিয়ে।

তার বাহিরে জীবন আছে নাকি!

হাসালে।জীবনের ব্যাপ্তি অনেক বেশি-

তুমি জীবনকে যেভাবে ভাববে

জীবন তোমাকে সেভাবেই চালিত করবে।

জীবনকে পানসে ভাবলে জীবন পানসে হবে,

জটিল করে ভাবলে, জটিলতায় ভরে যাবে জীবন।

সহজ,সুন্দর আর সাবলীল হও জীবনের সাথে-

জীবনও সুন্দর হবে,

উপভোগ করো জীবন।

আমি কি ভাবলাম তাতে আবার জীবন পাল্টায় নাকি?

আমি যাই ভাবিনা কেন –

জীবন জীবনের মতোই রয়ে যাবে।

ভুল ভাবছো, জীবনটা ওভাবে দেখতেই পাচ্ছো না।

সূর্য প্রতিদিন নিয়ম করে ভোরের সাথেই উঠে

পাল্লা দিয়ে ছুটে,অস্ত যায়।

কিন্তু তার কাছেও প্রতিটি দিন নতুন।

প্রতিদিন ভোরে সূর্যোদয় দেখে

তুমি তাকে শুধুই নিয়মিত ব্যপার ভাবে কেন?

চিন্তা করো জীবনের একটা নতুন দিন শুরু হলো

দিনটি চলে গেলে শেষ হয়ে গেলো।

দিনটিকে কিভাবে সফল করা যায় ভাবো।

প্রতিদিনের ব্যাক্তিগত জীবনটাকে অন্যভাবে ভাবো

তুমি সৌভাগ্যবান দিনটিকে উপভোগ করার সুযোগ পাচ্ছো।

সময়গুলো হেলাফেলা করে –

জীবনটা হেয়ালী করোনা।

উপভোগ করো কর্মজীবন-

প্রতিদিন ওখান থেকে একটা নতুন কিছু শেখার টার্গেট রাখো।

মানুষ- মুখোশ বুঝতে শিখো।

সূর্যাস্তের সাথে সাথে তোমার দিনটা যেন থেমে না যায়-

বরং ভাবো-

জীবনের একটা নির্দিষ্ট সময় থেকে,

অনেকগুলো সময় আজ চলে গেলো।

একটা গোটা দিন পিছনে পড়ে রইলো

এই দিনটা থেকে তুমি কি নিতে পেরেছো?

কতটুকু কাজে লাগিয়েছো,তোমার অপ্রাপ্তি কি?

দিনটাকে সফল করার জন্য আর কি দরকার ছিলো?

কালকের দিনে এ ভুল করবেনা শপথ নিয়ে ঘুমুতে যাও।

স্বপ্ন দেখো কালকের দিনটিকে কীভাবে শুরু করলে সফল হবে।

একটি দিন চলে যাওয়া মানে শুধু একটি দিন চলে যাওয়া নয়

অনেকগুলো সময় চলে যাওয়া,

স্বপ্নের পথে ছুটায় পিছিয়ে যাওয়া।

তুমি জীবনকে অন্যভাবে ভাবো-

কথা দিচ্ছি প্রতিটিদিন তোমার নতুন মনে হবে।

আমি কখনো ওভাবে ভাবিনি।ধন্যবাদ।

ধন্যবাদ আমাকে নয় জীবনকে দাও।

চলার পথে আমাদের যখন যা দরকার পড়ে-

জীবন কোন একভাবে সেটা পৌঁছে দেয় আমাদের কাছে –

আমরাই তার যোগসূত্রটা ধরতে পারিনা।

অসিমা দাস দৃষ্টি অর্থ সম্পাদক,লাইট ফর হিউম্যানিটি

আরও পড়ুন